kalerkantho


নান্দাইলে ছাত্রলীগে সংঘর্ষ, আহত ৮

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১০ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০



ময়মনসিংহের নান্দাইলে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে সাংবাদিক, পুলিশ, শিক্ষার্থীসহ অন্তত আটজন আহত হয়েছে। আহত হয়েছেন এ প্রতিনিধিও।

গতকাল সোমবার সকালে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কের চণ্ডীপাশা নতুন বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে এক ছাত্রলীগ নেতাকে গুরুতর অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সংগঠনটির বিবদমান দুই পক্ষের নেতৃত্ব দিচ্ছেন নান্দাইল পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. শফিকুল ইসলাম সালাম ও নান্দাইল শহীদ স্মৃতি আদর্শ কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মো. মনজিল হাসান। দুই পক্ষ ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহসড়কে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

এক পক্ষের নেতা শফিকুল ইসলাম বলেন, কলেজে নবীনবরণ অনুষ্ঠানের নামে ব্যাপক চাঁদাবাজি করা হচ্ছিল। এ ছাড়া কলেজের কমনরুমে বসার সময় তাঁর পক্ষের নেতাদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করা হয়। এর প্রতিবাদ জানানোর কারণে রবিবার সন্ধ্যায় তাঁকে গালাগাল করার পাশাপাশি কয়েকজনকে মারধর করা হয়। সোমবার সকালে কলেজে তাঁর পক্ষের নেতাদের ওপর চড়াও হয় ওই পক্ষ। এ সময় তার পক্ষের একজন আহত হয়।

তবে অন্য পক্ষের নেতা মনজিল হাসান চাঁদাবাজির অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, প্রতিপক্ষের সমর্থকরা কলেজের কমনরুমে বসে ধূমপানসহ মেয়েদের বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করে। এসবের প্রতিবাদ করলে তাঁর এক সমর্থককে রবিবার সন্ধ্যায় মারধর করা হয়। সোমবার কলেজে যাওয়ার পর তাঁর সমর্থকদের ওপর চড়াও হয় ওই পক্ষ। এতে বাধা দিলে দুই পক্ষে ধাওয়াধাওয়ির একপর্যায়ে সংঘর্ষ বাধে। এ ঘটনায় তাঁর পক্ষের চারজন আহত হয়। নান্দাইল মডেল থানার ওসি বলেন, ছাত্রলীগের দুই পক্ষকে নিবৃত্ত করতে পুলিশকে চার রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়তে হয়েছে। এ সময় উপপরিদর্শক (এসআই) নুরুল হুদা আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


মন্তব্য