kalerkantho


রাজাপুর দিনাজপুর কেরানীগঞ্জ

দুই শিশু ও তরুণীকে ধর্ষণ

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



ঝালকাঠির রাজাপুর ও দিনাজপুরে দুই শিশু এবং ঢাকার কেরানীগঞ্জে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। কেরানীগঞ্জের ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তি একজন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা।

কালের কণ্ঠ’র প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

ঝালকাঠি : রাজাপুরে আট বছরের এক শিশুকে ধর্ষণে অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম ইউনুস হাওলাদার। তার বাড়ি উপজেলার সুক্তাগড় গ্রামে। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা গত বৃহস্পতিবার রাতে রাজাপুর থানায় ইউনুসের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। পুলিশ জানায়, দ্বিতীয় শ্রেণিপড়ুয়া শিশুটি গত বুধবার দুপুরে বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফিরছিল। পথে ইউনুস হাওলাদার শিশুটিকে জোর করে নির্জন একটি বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। শিশুটির চিৎকার শুনে পাশের রাস্তা থেকে দুই পথচারী এসে বাগানে ঢুকলে ইউনুস পালিয়ে যায়। শিশুটি বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি তার মা-বাবাকে জানায়। তাকে রাজাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। শিশুটিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য গতকাল শুক্রবার দুপুরে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ।

রাজাপুর থানা পরিদর্শক মো. হারুন অর রশীদ জানান, অভিযুক্ত ইউনুসকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশ অভিযান চালিয়েছে।

দিনাজপুর : পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডে গতকাল শুক্রবার ধর্ষণের শিকার হয় চার বছর বয়সী এক শিশু। শিশুটিকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ধর্ষণে অভিযুক্ত জালালের (২২) বাড়ি পৌর এলাকার শেখপুরায়। নির্যাতিত শিশুটির এক আত্মীয় জানান, দুপুরে জালাল পেয়ারা দেওয়ার কথা বলে শিশুটিকে বাড়ির পাশে ধানক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে। এতে শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে কোলে করে বাড়ির পাশে রেখে পালিয়ে যায় জালাল। গুরুতর অবস্থায় শিশুটি বাড়িতে এলে তার মা বিষয়টি জানতে চান। সে ঘটনাটি জানায়। দুপুর দেড়টার দিকে শিশুটির অবস্থার অবনতি হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার মাসুদুর রহমান বলেন, ‘শিশুটির প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। চিকিৎসা চলছে। ’

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) : বাস্তা ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য নুরুজ্জামান দেওয়ানের বিরুদ্ধে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ঢাকার আদালতে একটি মামলা করেছেন। শুক্রবার সকালে বাস্তা ইউনিয়নের রাজাবাড়ী এলাকায় অভিযুক্ত ব্যক্তির বিচার দাবিতে মানববন্ধন করেছে স্থানীয়রা। মানববন্ধনে অংশ নেয় ওই তরুণীর পরিববার, ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য জহির উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জাকির আহমেদ, বাস্তা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সাহেদ আলীসহ শতাধিক মানুষ। ওই তরুণী মানববন্ধনে অংশ নিয়ে জানান, কয়েক মাস আগে স্বামীর সঙ্গে তাঁর ছাড়াছাড়ি হয়। এরপর তিনি মা-বাবার সংসারে আশ্রয় নেন। নুরুজ্জামান দেওয়ান তরুণীকে মাদার হোসেন নামের এক ছেলের সঙ্গে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। মাদার কক্সবাজারে অবস্থান করছে এবং সেখানে বিয়ে হবে জানিয়ে গত ৭ সেপ্টেম্বর কক্সবাজার হোটেল গ্রিন প্যালেসের ৩০৬ নম্বর কক্ষে ওঠে। সেখানে নুরুজ্জামান তরুণীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে এবং ঘটনা কাউকে জানালে বা থানায় মামলা করলে তরুণী ও তাঁর পরিবারের লোকজনকে হত্যার হুমকি দেয়। ৯ সেপ্টেম্বর সে তরুণীকে ঢাকায় নিয়ে আসে। পরে তরুণী দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় গিয়ে অভিযোগ করলেও পুলিশ মামলা নেয়নি। এরপর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ধর্ষণজনিত পরীক্ষা করান এবং রিপোর্ট নিয়ে আদালতে মামলা করেন। দক্ষিণ কেরানীগঞ্জন থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম জানান, ‘ঘটনাটি ঘটেছে কক্সবাজার এলাকায়। তাই তরুণীকে সেখানে মামলা করার কথা বলেছি। ’


মন্তব্য