kalerkantho


কয়লা ধোয়া পানি ছড়িয়ে পড়ছে সুন্দরবনে

বাগেরহাট প্রতিনিধি   

৩ নভেম্বর, ২০১৫ ০০:০০



কয়লা ধোয়া পানি ছড়িয়ে পড়ছে সুন্দরবনে

সুন্দরবনের পশুর নদে ডুবে যাওয়া কার্গো জাহাজের ত্রিপল খুলে গেছে। এতে জোয়ারের সময় প্রবল স্রোতে কয়লা ধোয়া পানি সুন্দরবনে ছড়িয়ে পড়ছে।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের চাঁদপাই স্টেশন কর্মকর্তা গাজী মতিয়ার রহমান বলেন, 'দুর্ঘটনাস্থল থেকে ওই জাহাজ প্রায় ৩০ ফুট গভীর পানিতে নিমজ্জিত রয়েছে। প্রবল স্রোতের কারণে জাহাজে কয়লা ঢেকে রাখা ত্রিপল খুলে গেছে। এখন ওই কয়লার ওপর দিয়ে জোয়ার-ভাটার পানি প্রবাহিত হচ্ছে। '

খুলনা অঞ্চলের বনসংরক্ষক ড. সুনীল কুমার কুণ্ডু বলেন, 'কয়লা ধোয়া পানি ছড়িয়ে পড়ায় সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্য এবং জলজ প্রাণীর ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে। এ কারণে এ মুহূর্তে কার্গোটি উত্তোলন এবং কয়লা অপসারণ করা জরুরি হয়ে পড়েছে। '

ডুবে যাওয়া এমভি জিয়া রাজ কার্গো জাহাজের মালিক দিলশাদ খান বলেন, 'ডুবে যাওয়া কার্গোটি উত্তোলনের জন্য নারায়ণগঞ্জের ভাই ভাই স্যালভেজ নামের একটি বেসরকারি নৌযান উদ্ধারকারী প্রতিষ্ঠান চুক্তিবদ্ধ হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী ওই প্রতিষ্ঠান কার্গো উত্তোলন এবং কার্গো থেকে কয়লা অপসারণ করবে। '

ভাই ভাই স্যালভেজের স্বত্বাধিকারী মো. আবদুস সাত্তার বলেন, '১৫ জনের একটি দল দুটি নৌযান, বিভিন্ন মালামাল ও বেশ কিছু যন্ত্রাংশ নিয়ে গতকাল সোমবার সকালে নারায়ণগঞ্জ ছেড়েছে। আগামী বৃহস্পতিবার দলটির দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর কথা রয়েছে।

শুক্রবার থেকে কয়লা অপসারণের কাজ শুরু হবে। প্রায় ১০ দিন লেগে যাবে ওই কয়লা অপসারণ করতে। এরপর জাহাজটিকে উত্তোলন করতে প্রায় ২০ দিন লেগে যাবে। '

উল্লেখ্য, মংলা বন্দরের হারবারিয়া থেকে ৫১০ টন কয়লা নিয়ে এমভি জিয়া রাজ কার্গো গত ২৭ অক্টোবর যশোরের নওয়াপাড়ার উদ্দেশে রওনা হয়। তলা ফেটে রাত ৯টার দিকে কার্গোটি পশুর নদে ডুবে যায়।

 


মন্তব্য