kalerkantho


দিনাজপুরে নির্বাচনী সহিংসতা

১২৮ মামলায় ২৫৬ অভিযোগপত্র পলাতক চার হাজার আসামি

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

১ জুলাই, ২০১৫ ০০:০০



দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দিনাজপুরের পাঁচটি আসনের ভোটকেন্দ্রে ভাঙচুর, আগুন দেওয়াসহ নির্বাচনকাজে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের ওপর হামলার ঘটনায় দায়ের করা ১২৮ মামলায় ২৫৬টি অভিযোগপত্র (চার্জশিট) আদালতে দাখিল করেছেন তদন্ত কর্মকর্তারা। এসব মামলায় বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের এক হাজার ২২৬ জন নেতাকর্মীর নামসহ অজ্ঞাতপরিচয় প্রায় ২৫ হাজার জনকে আসামি করা হয়।

তাদের মধ্যে সাড়ে তিন হাজার জনকে গ্রেপ্তারের পর কারাগারে পাঠানো হয়। পরে তাদের অধিকাংশই জামিনে মুক্তি পায়। এদিকে আরো চার হাজার পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তারে পরোয়ানা তামিল হচ্ছে না বলে পুলিশের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলেছেন অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর সাইফুল ইসলাম।

বিচারিক হাকিমের আদালত সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ৫ জানুয়ারি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জেলার ছয়টির মধ্যে পাঁচটি আসনের ভোটগ্রহণ বানচালে বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মী, সমর্থকরা কেন্দ্র দখল করে নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড চালায়। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ভোটকেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার ও ভোটকেন্দ্রের নিরাপত্তায় নিয়োজিত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা বাদী হয়ে ১২৮টি মামলা করেন। ওই সব মামলার তদন্তে বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল ও জামায়াত-শিবিরের সাড়ে সাত হাজার নেতাকর্মীকে চিহ্নিত করা হয়েছে।

গত ২০ জুন পর্যন্ত তদন্ত চলে। গত সোমবার বিকেলে আদালত সূত্র জানায়, নিয়মিত ও বিস্ফোরক আইনে একটি করে দুটি অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন তদন্ত কর্মকর্তারা। নিয়মিত আইনের মামলাগুলো বিচারিক হাকিম আদালতে ও বিস্ফোরকদ্রব্য আইনের মামলাগুলোর বিচার প্রক্রিয়া দায়রা জজ আদালতে শুরু হয়েছে।

জেলা ও দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর সাইফুল ইসলাম জানান, পলাতক আসামিদের ধরতে আদালতে গ্র্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। পুলিশ আসামিদের আদালতে হাজির করতে না পারায় বিচার প্রক্রিয়া ধীরগতিতে এগোচ্ছে।

 


মন্তব্য