kalerkantho


দেশে প্রথমবারের মতো লিভার ডায়ালাইসিস

আতাউর রহমান কাবুল   

২৩ মার্চ, ২০১৮ ১৮:৩২



দেশে প্রথমবারের মতো লিভার ডায়ালাইসিস

কিডনির বিকলের চিকিৎসায় হেমো ডায়ালাইসিস সম্ভব হলেও লিভার চিকিৎসায় ডায়ালাইসিস এতদিন বাংলাদেশে হয়নি। অবশেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) শুরু হলো এই চিকিৎসা পদ্ধতি। বৃহস্পতিবার মো. সিরাজুল ইসলাম হক (৫৫) নামে এক রোগীকে প্রথমবারের মতো এই ডায়ালাইসিস করা হয়। লিভার বিভাগের অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল নতুন এই ইউনিক পদ্ধতিতে লিভার ডায়ালাইসিস শুরু করেন। তাকে সহযোগিতা করেছেন একই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. শেখ মোহাম্মদ নূর-ই-আলম ডিউ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রান্সফিউশন মেডিসিন বিভাগ। 

জানা গেছে, লিভার সিরোসিস ও লিভার ফেইলররের রোগী ছিলেন মো. সিরাজুল ইসলাম হক যার ছেলেও একজন চিকিৎসক। তার বিলরুবিন সব সময় বেশি থাকতে (সর্বশেষ ছিল ৮)। প্রচলিত চিকিৎসা প্রয়োগ করেও বিলরুবিন কোনোভাবেই কমানো যেতে না। এরপর তাকে ডায়ালাইসিসের জন্য বাছাই করা হয় এবং তা সফলভাবে প্রয়োগও করা হয়। গতকাল খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ডায়ালাইসিসের পর তিনি ভালো আছেন এবং শারীরিক উন্নতি বুঝতে পারছেন।  

অধ্যাপক স্বপ্নীল শুক্রবার এই প্রতিবেদককে বলেন, 'নতুন এই বৈজ্ঞানিক ফর্মুলা বিশ্বে প্রথমবারের মতো ব্যবহার করেছি আমরা। এটাতে তেমন সাইড ইফেক্ট নেই। উন্নত বিশ্বে মার্স ডায়ালাইসিস মেশিনে প্রচুর এলবুমিন ব্যবহার করে ডায়ালাইসিস করা হলেও তা অত্যন্ত ব্যয়বহুল। আমরা সে ব্যয়বহুল পদ্ধতি ব্যবহার না করে বরং প্লাজমা এফেরেসিস মেশিনকে মোডিফাই করে ফিল্টার লাগিয়ে লিভার বিলরুবিন ডায়ালাইসিস করেছি; যাতে খরচ কমেছে এক-দশমাংশ। বলা যায়, এর মাধ্যমে লিভার চিকিৎসার এক দিগন্ত উন্মোচিত হলো।'
 
তিনি বলেন, 'মার্স মেশিনে ৩ বার ডায়ালাইসিস করা যায়, আমরাও তিনবার প্রয়োগ করবো। প্রতিবার খরচ পড়বে ৩৫-৪০ হাজার টাকার মতো। এটা নিয়ে গত দুই তিন বছর ধরে কাজ করছি। রেসপন্স ফলো করে ম্যাসিভ লেবেল শুরু করবো।' 

অধ্যাপক স্বপ্নীল জানান, জন্ডিসে দীর্ঘমেয়াদী ভুগতে থাকা কিংবা লিভার ফেইলিউরের রোগীরা যাদের প্রচলিত চিকিৎসা পদ্ধতি ব্যবহার করেও তেমন উপকার হচ্ছে না, তাদের ক্ষেত্রে এই লিভার বিলুরুবিন ডায়ালাইসিস হতে পারে জীবণ রক্ষাকারী চিকিৎসা।



মন্তব্য