kalerkantho


বিএসএমএমইউ'তে স্টেম সেল থেরাপির সফল প্রয়োগ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৯:২২



বিএসএমএমইউ'তে স্টেম সেল থেরাপির সফল প্রয়োগ

চিকিৎসাবিজ্ঞানের যুগান্তকারী আবিষ্কার স্টেম সেল থেরাপি। অবিভাজিত এই জীবকোষ প্রয়োগ করে দেহের যে কোনো অংশের অকার্যকর কোষ পুনঃনির্মাণ করে রোগীকে সুস্থ করে তোলা সম্ভব। পৃথিবীর উন্নত দেশে লিভার অকার্যকর বা সিরোসিস, ব্ল্যাড ক্যান্সার, হার্ট ফেইলর, ডায়াবেটিস, ত্বকে ঘা, মাথায় চুল গজানো, চোখের রোগসহ নানা রোগে স্টেম সেল থেরাপির সফল প্রয়োগ হচ্ছে। আশার কথা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) হেমাটোলজি, হেপাটোলজিসহ বিভিন্ন বিভাগের সমন্বয়ে লিভার সিরোসিস আক্রান্ত ৩৭ জন রোগীর দেহে স্টেম সেল থেরাপি প্রয়োগ ইতিমধ্যে ৩৪ জনের ক্ষেত্রে সফলতা পাওয়া গেছে। এখন তাদের লিভারের অবস্থার যথেষ্ট উন্নতি হয়েছে এবং অকার্যকর লিভার ইতিমধ্যে কাজ করতে শুরু করেছে। 

আজ মঙ্গলবার বিএসএমএমইউতে বাংলাদেশ স্টেমসেল অ্যান্ড রিজেনারেটিভ মেডিসিন সোসাইটির প্রথম আন্তর্জাতিক সম্মেলনে বক্তরা এসব তথ্য জানান। সোসাইটির সভাপতি ও বিএসএমএমইউর হেমাটোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মাসুদা বেগমের সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান। বক্তব্য রাখেন, বিএসএমইউর হৃদদরোগ বিভাগের অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক, সোসাইটির সম্পাদক ও বিএসএমএমইউর লিভার বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল), ইসলামিক রিপাবলিক অব ইরানের এ্যাম্বাসেডর চার্জ দ্য এ্যাফেয়ার্স ইব্রাহীম সাফি রিজওয়ানি নেজাদ, ভারতীয় হাইকমিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারি অব ইকোনোমিক্স মিস জিনা ইউকি, জাপানের ডা. শেখ মোহাম্মদ ফজলে আকবর, ইরানের ডা. হামিদ রেজা আগায়ান প্রমূখ। সম্মেলনে জাপান, ইরান ও ভারতের বিশেষজ্ঞসহ অর্ধশতাধিক দেশীয় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অংশগ্রহণ করেন।

ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন বলেন, ‘স্টেম সেল থেরাপি পুরেপুরি বাস্তবায়ন হলে চিকিৎসা ক্ষেত্রে বাংলাদেশ আরো এক ধাপ এগিয়ে যাবে। এতে রোগীর জীবনযাত্রার মান উন্নত হবে, চিকিৎসার খরচ কমবে এবং রোগীর কর্মক্ষমতাও বজায় থাকবে।’

অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান বলেন,  ‘স্টেম সেল থেরাপি প্রয়োগ করে রোগীকে বাঁচিয়ে রাখা যায় এটা এখন স্বপ্ন নয়, বাস্তবতা। বিএসএমএমইউতে ৩৭ জন রোগীর দেহে স্টেমসেল প্রতিস্থাপন ও সফলতা বিরাট অর্জন। ভবিষ্যতে এখানে রিজেনারেটিভ মেডিসিনের কার্যক্রম শুরু করা হবে।’   
ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল) বলেন, ‘স্টেম সেল নিয়ে দেশে প্রায় দেড় বছর ধরে তারা কাজ করছেন। ইতিমধ্যে এই থেরাপি ব্যবহার করে লিভার সিরোসিস রোগীদের যথেষ্ট সফলতা মিলেছে বলে তারা আশাবাদী।’ 


মন্তব্য