kalerkantho


ভুল সবই ভুল

স্টার অব ডেভিড ইহুদি প্রতীক

সবাই সত্যি জানে—এমন অনেক কথা পরে যাচাই করে দেখা গেছে সেগুলো মিথ্যা। লিখেছেন আসমা নুসরাত

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



স্টার অব ডেভিড ইহুদি প্রতীক

হিন্দু ধর্মে এটিকে নারী ও পুরুষের স্বর্গীয় মিলনের রূপকে দেখা হয়।

স্টার অব ডেভিডের সঙ্গে ইহুদিদের প্রাতিষ্ঠানিক যোগ হয় ১৮৯৭ সালে। সে বছর সংগঠিত হয়েছিল প্রথম জিওনিস্ট কংগ্রেস। তারাটিকে ইহুদি পতাকায় স্থান দেওয়া স্থির করেছিল কংগ্রেসম্যানরা।  পরে সে পতাকাটিই ১৯৪৮ সালে ইহুদি রাষ্ট্র ইসরায়েলের পতাকা হয়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় হিটলার বাহিনী ইহুদিদের হলুদ রঙা স্টার অব ডেভিড পরতে বাধ্য করে। তারপর হলিউডের যুদ্ধবিরোধী সিনেমাগুলোয় প্রতীকটি অনেকবারই দেখা গেছে। এভাবে ইহুদিদেরই প্রতীক হয়ে ওঠে স্টার অব ডেভিড। আগেও, অবশ্য মধ্যযুগে ইউরোপের কিছু সিনাগগে (ইহুদিদের প্রার্থনালয়) প্রতীকটি দেখা গেছে। অবশ্য আরো আগে থেকে কাব্বালায় (ইহুদি তন্ত্রবিদ্যা) এর ব্যবহার দেখা যায়।

স্টার অব ডেভিড একটি হেক্সাগ্রাম (ছয় কোনা তারা)। একটি ঊর্ধ্বমুখী ও আরেকটি নিম্নমুখী ত্রিভুজ পরস্পরকে ভেদ করে এ প্রতীকে। হিন্দু ধর্মে এটিকে নারী ও পুরুষের স্বর্গীয় মিলনের রূপকে দেখা হয়। ঊর্ধ্বমুখী ত্রিভুজটি শক্তি মানে পুরুষের প্রতীক আর নিম্নমুখী ত্রিভুজটি প্রকৃতি মানে নারীর প্রতীক। গবেষকরা বলছেন, প্রতীকটির বয়স ইহুদিবাদের চেয়েও বেশি। গবেষকরা আরো বলছেন, সংস্কৃত লেখ্যপদ্ধতি আর সেমিটিক (ফিনিশিয়ান বর্ণমালা) লেখ্যপদ্ধতির মধ্যে আদান-প্রদান ঘটেছে অনেকবার। তাই ছয় কোনা তারার ভ্রমণ মেনে নেওয়াও কঠিন হচ্ছে না। ওয়ারউইক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলিয়ানর নেসবিট আরেকটু এগিয়ে বলছেন, তন্ত্র-মন্ত্রে ডায়াগ্রাম ব্যবহারের রেওয়াজ সুপ্রাচীন। ৯ কোনা তারার ব্যবহারও রয়েছে সনাতন ধর্মে। শক্তি আর প্রকৃতির ব্যাপারটি বেশি বয়সী মনে হওয়ার যুক্তি রয়েছে।



মন্তব্য