kalerkantho


ভুল সবই ভুল

আফ্রিকার অনেকটাই মরুভূমি

সবাই সত্যি জানে—এমন অনেক কথা পরে যাচাই করে দেখা গেছে সেগুলো মিথ্যা। লিখেছেন আসমা নুসরাত

২০ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



আফ্রিকার অনেকটাই মরুভূমি

আফ্রিকার অনেক জায়গাই এমন সবুজ

থাকার ভালো হোটেল নেই, জঙ্গলে ভরা, প্রায় সবাই গরিব, লোকেরা কুঁড়েঘরে থাকে—এ রকম অনেক কথা চালু আছে আফ্রিকাকে ঘিরে। পৃথিবীর বৃহত্তম গরম মরুভূমি সাহারা এখানে বলে অনেকের ধারণা আফ্রিকা পুরোই বুঝি মরুভূমি। অথচ সাহারা মরুভূমি আফ্রিকার মোট আয়তনের মাত্র ২৫ শতাংশ। এই ভুল ধারণাটার পেছনের কারণ অনেকে আফ্রিকাকে একটি দেশ মনে করে, মহাদেশ নয়। অথচ সাহারার আয়তন ৩.৩ মিলিয়ন বর্গমাইল। ব্রাজিলের আয়তনের সমান প্রায়। গবেষকরা বলছেন, আফ্রিকার বড় অংশটা আসলে মধ্য আফ্রিকায় আর এর আবহাওয়া গ্রীষ্মমণ্ডলীয় রেইনফরেস্ট অঞ্চলের মতো। আফ্রিকার সাভানা সমভূমিকে প্রেইরি অঞ্চলের মতোই ধরা যায়। তাই আফ্রিকার অনেকটাই যে মরুভূমির মতো নয়, তা পরিষ্কার করেই বলা যায়। 

পনেরো শতকের গোড়ায় পর্তুগিজরা প্রথম আফ্রিকায় যায়। তাদের পিছু পিছু যায় ওলন্দাজ, ইংরেজ ও ফরাসিরা। তারা বাণিজ্য শুরু করে আফ্রিকার পশ্চিম উপকূলে। তারপর কলম্বাস আমেরিকা আবিষ্কার করেন। নতুন দুনিয়া সাফ করতে অনেক মানুষ দরকার হয়। আফ্রিকা সে ক্ষেত্রে একটি উর্বর এলাকা। আফ্রিকা থেকে নিগ্রো নামের অনেক দাস চালান হতে থাকে নিউ ওয়ার্ল্ড বা নতুন দুনিয়ায়। এটা বৈধ করতে আফ্রিকাকে মরুর দেশ, জঙ্গলে ভরা, সভ্যতাবিবর্জিত ইত্যাদি বলা প্রয়োজন পড়ে দাসব্যবসায়ীদের। পশ্চিমা দুনিয়ায় এগুলো প্রচলিত হতে সময়ও লাগে না। পরে হলিউডের ছবিগুলোও এসব ভুল ধারণার প্রসার ঘটায়।



মন্তব্য