kalerkantho


সবই ভুল

বড় অনুষ্ঠান বড় ভুল

এবারের অস্কারে সেরা ছবির নাম ঘোষণায় ভুল করে বসেন ঘোষক। এমন বড় আসরে এ ধরনের ভুল এটাই প্রথম নয়। জানাচ্ছেন মামুন রশীদ

৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বড় অনুষ্ঠান বড় ভুল

এবারের অস্কারে সেরা ছবির নাম ভুল ঘোষণা নিয়ে বিব্রতকর পরিস্থিতি

অস্কার ১৯৯৩

 

১৯৯৩ সালের ৬৫তম অস্কার। নারী পার্শ্বচরিত্রে বিজয়ী হিসেবে নাম ঘোষণা হলো মারিসা টোমেইর। ঘোষণার পরই গুঞ্জন, এ অস্কার কিছুতেই পেতে পারেন না মারিসা। প্রথমে চাপা থাকলেও পরদিন হলিউড রিপোর্টারের ‘গুজবে কান দেবেন না’ ঘরানার একটি প্রতিবেদনের পর চাউর হয়, মারিসার নাম ভুল করে ঘোষণা করেন ৭৩ বছর বয়সী উপস্থাপক জ্যাক প্যালেন্স। অনেকে যুক্তি দেখান, বিজয়ীর বদলে নমিনিদের কার্ড হাতে ছিল জ্যাকের। শেষ নমিনি হিসেবে মারিসার নামটাই বিজয়ী হিসেবে বলে ফেলেন তিনি। কেলেঙ্কারীর ভয়ে অস্কার কমিটিও নাকি চেপে যায় বিষয়টি।   শেষে মারিসার কাছেই থেকে যায় পুরস্কার।

মোবো অ্যাওয়ার্ড ২০১৬

সংগীতের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। ভুল গানের নাম সেরা ঘোষণা করে বসেন ঘোষক। আর সেই ভুল সংশোধন করতেও পেরিয়ে যায় দীর্ঘ সময়।

এর মধ্যে প্রায় এক ঘণ্টা ‘আরঅ্যান্ডবি ট্রিও’র সদস্যরা পুরস্কার নিয়ে উল্লাস করেন। এরপর জানতে পারলেন, পুরস্কারটি আসলে পেয়েছে ‘এমসি আবরা’। ঘোষক রিকি উইলিয়াম এবং ম্যালভিন ওডোম ভুলে অন্য একটি খাম তুলে নামটি পড়ে ফেলেছিলেন।

মিস ইউনিভার্স ২০১৫

বিশ্বসুন্দরীদের আসর। সেখানে বিজয়ীর নাম নিয়ে যে ঘটনা ঘটেছিল, তা নিয়ে বহু দিন আলোচনা হয়েছিল। ভুলক্রমে মিস কলম্বিয়াকে মিস ইউনিভার্স ঘোষণা করা হয়। বিজয়িনীর মাথায় মুকুটও পরিয়ে দেওয়া হয়। ‘বিজয়ী’ কিছু কথাও বলে ফেলেন। তখন ঘোষক জানান, আসলে একটা বড় ভুল হয়ে গেছে। মিস রানার-আপকে ভুলে বিজয়ী ঘোষণা করে ফেলেছেন তিনি। আসলে মিস ইউনিভার্স হয়েছেন মিস ফিলিপিন্স পিয়া আলঞ্জো। পরে মিস কলম্বিয়ার মাথা থেকে মুকুট খুলে মিস ফিলিপিন্স পিয়া আলঞ্জোর মাথায় পরিয়ে দেওয়া হয়।

এক্স ফ্যাক্টর ২০১৫

পশ্চিমের জনপ্রিয় প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠান এক্স ফ্যাক্টর। সেই আসরের সঞ্চালক ছিলেন ওলি মার্স। তিনি ভুল করে মনিকা মাইকেলকে পরাজিত ঘোষণা করেন। সেখানে চারজন বিচারক ছিলেন। তিনজন বিচারকের রায় শুনেই ঘোষণা দিয়ে ফেলেছিলেন ওলি। দুজন বিচারক মনিকাকে পরাজিত ঘোষণা করায় ওলি ভেবেছিলেন রায় হয়ে গেছে। তখনো বাকি ছিল একজন বিচারকের রায়। পরে সেই বিচারক মনিকাকে বিজয়ী ঘোষণা করেন। ফলাফল হয় সমান। তাই রায় নির্ভর করে দর্শকদের রায়ের ওপর। সেখানে অবশ্য হেরে যান মনিকা। তবে বিষয়টি নিয়ে বেশ সমালোচনা হয়। অনেকে বলেন, আসলে সঞ্চালকের ভুলের কারণে দর্শক জরিপে প্রভাব পড়েছে।

 

অস্ট্রেলিয়া টপ মডেল ২০১০

২০১০ সালে অস্ট্রেলিয়ার সেরা মডেল বাছাই অনুষ্ঠান চলছে। উপস্থাপিকা সারাহ মারডক। তাঁরই ভুল ঘোষণার কারণে ফলাফল বদলে যায়। প্রথমে বিজয়ী ঘোষণা করা হয় কেলসি মার্টিনোভিচকে। মুকুটও পরিয়ে দেওয়া হয়। এর পরই সারাহ জানান, তিনি ভুল করে ফেলেছেন। আসলে জয়ী হয়েছেন আমান্ডা ওয়্যার। ‘সেদিনের কথা ভাবলে আজও অসুস্থবোধ করি!’ পরে সংবাদমাধ্যমকে বলেছিলেন সারাহ মারডক।


মন্তব্য