kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পূর্বপুরুষের খোঁজে

এক যে ছিলেন কুন্তা কিন্তে

রুটসের কুন্তা কিন্তের কথা অনেকেরই মনে থাকার কথা। সেই কুন্তা কিন্তের নামে আমেরিকার মেরিল্যান্ডে কুন্তা কিন্তে হেরিটেজ ফেস্টিভাল হয় ২৪ সেপ্টেম্বর। মো. নাভিদ রেজোয়ান বলছেন পুরোটা

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



এক যে ছিলেন কুন্তা কিন্তে

রুটস টিভি সিরিজে কুন্তা কিন্তে

আমেরিকায় দাসত্বের ইতিহাস শুরু হয়েছিল ১৬১৯ সালে, আফ্রিকার ২০ জন কালো মানুষ নিয়ে। এর পর থেকে প্রতিবছরই ধরে আনা হতো আফ্রিকানদের।

সংখ্যাটি বছর বছর বাড়তেও থাকল। ১৭৬৩ সালে সংখ্যাটি গিয়ে দাঁড়ায় দুই লাখ ৩০ হাজারে। ১৮৬০ সালে সংখ্যাটি ৪০ লাখের সীমা ছাড়ায়।

 

দেশটির নাম গাম্বিয়া

আফ্রিকার সবচেয়ে ছোট দেশটির নাম গাম্বিয়া।

পশ্চিম আফ্রিকার এই দেশটির আয়তন সাড়ে ১০ হাজার বর্গকিলোমিটারের কিছু বেশি। ১৯৬৫ সালে ব্রিটিশ শাসনের কবল থেকে মুক্তি পায় গাম্বিয়া। গাম্বিয়ার ইতিহাসের অনেকটা জায়গাজুড়ে আছে দাসদের কান্না।  

গাম্বিয়ারই মানুষ ছিলেন কুন্তা কিন্তে। ১৭৫০ সালে জন্ম। তাঁর গোষ্ঠীর নাম মান্দিকা। গ্রামের নাম জুফুরি। রীতি অনুযায়ী জন্মের আট দিন পরই তাঁর নাম রাখা হয়েছিল। দাদি প্রাণভরে দোয়া করেন যেন বংশের মুখ উজ্জ্বল করতে পারে। কুন্তা কিন্তের দাদা ছিলেন পীরগোছের মানুষ। তাঁকে মানুষ সম্মান করত। আজও জুফুরি গ্রামে কুন্তা কিন্তের উত্তরসূরিদের খুঁজে পাওয়া যায়।

 

জঙ্গলে গিয়েছিল কুন্তা

১৭৬৭ সাল। কুন্তার বয়স ১৭ হয়েছে। বন্ধুদের সঙ্গে কাঠ কাটতে গিয়েছিল জঙ্গলে। একটি ড্রাম বানাতে চেয়েছিল। কুখ্যাত লর্ড লিগোনিয়ার নামের জাহাজটি তখন জুফুরির কাছেই ভিড়ে ছিল।

আলেক্স হ্যালি তাঁর রুটস বইতে লিখেছেন, সেদিন দাস শিকারিরা হঠাৎ কুন্তা কিন্তে আর তাঁর বন্ধুদের পেয়ে যায় জঙ্গলে। বন্ধুরা তাকে পালাতে বলে। কিন্তু সে ওদের সঙ্গে যুদ্ধে লিপ্ত হয়। দস্যুরা সংখ্যায় বেশি ছিল, তাই কুন্তা পরাজিত হয়। এর পর থেকে আর তার  দেখা পায়নি জুফুরির মানুষ।

 

কুখ্যাত লর্ড লিগোনিয়ার

কুন্তাকে সম্ভবত অচেতন করে তোলা হয়েছিল লর্ড লিগোনিয়ারে। তার পর তাকে জেমস আইল্যান্ডে নিয়ে যাওয়া হয়। দাস ব্যবসায়ীদের স্বর্গরাজ্য ছিল দ্বীপটি। চারপাশের স্থলভূমি থেকে মানুষ ধরে নিয়ে আসা হতো এখানে। জাহাজের জায়গা ঠাসাঠাসি হয়ে এলে জাহাজ পাল তুলত নতুন পৃথিবী, মানে আমেরিকার উদ্দেশে। আমেরিকার মেরিল্যান্ডের আনাপোলিস পর্যন্ত যেতে সময় লাগত দুই মাস।

 

নতুন পৃথিবী

আনাপোলিসে পৌঁছানোর পর কুন্তাকে বিক্রি করা হয় ভার্জিনিয়ার স্পটসিলভানিয়া কাউন্টির মাস্টার ওয়ালারের কাছে। ওয়ালার কুন্তা কিন্তের নাম রাখেন টবি। কুন্তা অবশ্য তার নাম পরিবর্তন মেনে নিতে পারেনি। সে অন্যদের সঙ্গে কথা বলাও বন্ধ করে দেয়। বেশ কয়েকবার পালানোর চেষ্টাও করে। শাস্তি হিসেবে তার অণ্ডকোষ কেটে ফেলার কথা বলা হলে সে ডান পা কেটে ফেলতে দিতে রাজি হয়। এর পর থেকে সে আশপাশের সঙ্গে মিলিয়ে চলতে চেষ্টা করে। কিন্তু কখনোই সে অতীত ভোলেনি। বেল নামের একজন দাসিকে বিয়ে করেছিল কুন্তা। তাদের একমাত্র কন্যাসন্তানের নাম কিজি। কিজির মাকিন্দা নাম হলো কেইসা। যার মানে  ধৈর্যশীল। কেইসাকে আঠারো বা উনিশ বছর বয়সেই নর্থ ক্যারোলাইনার একজন মাস্টারের কাছে বিক্রি করা হয়। কেইসা একপর্যায়ে তার প্রভু কর্তৃক ধর্ষিত হয় এবং সন্তান ধারণ করে। সন্তানের নাম রাখা হয়েছিল জর্জ। সবাই বলত চিকেন জর্জ। কারণ সে প্রভুর মোরগযুদ্ধ দেখাশোনা করত।

 

রুটস

১৯৭৭ সালে নির্মিত রুটস ধারাবাহিকে দেখা যায় কেইসা মা-বাবাকে খুঁজতে গিয়েছিল। কেইসা মা-বাবাকে অবশ্য খুঁজে পায়নি। তার আগেই আরেক মাস্টারের দখলে চলে যায়।    কুন্তা কিন্তে মারা যায় ১৮২২ সালে। কেইসা পরে বাবার কবর খুঁজে পেয়েছিল। কবরের ফলকের টবি নাম মুছে দিয়ে লিখে দেয় কুন্তা কিন্তে। অ্যালেক্স হ্যালির দাবি করেন, তিনি নিজে কুন্তা কিন্তের সপ্তম প্রজন্ম।  

 

কুন্তা কিন্তে আইল্যান্ড

২০১১ সালে জেমস আইল্যান্ডের নাম বদলে রাখা হয় কুন্তা কিন্তে আইল্যান্ড। দ্বীপটিতে এখনো সেই সময়ের স্থাপনার ধ্বংসাবশেষ আছে, আছে তখনকার কামানও। আমেরিকা এবং বিশ্বের আরো সব জায়গা থেকে গাম্বিয়ার মানুষ সেখানে যায়, পূর্বসূরিদের সম্মান জানায়। এদিকে মেরিল্যান্ডে প্রতিবছর কুন্তা কিন্তে হেরিটেজ ফেস্টিভাল হয়।  

 

কুন্তা কিন্তে উৎসব

আনাপোলিসে উৎসবটি শুরু হয় ১৯৮৭ সালে। সব আফ্রিকান-আমেরিকানের উৎসব এটি। এখানে বাচ্চাদের তাদের ঐতিহ্যের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়। বাচ্চারা এখানে এসে  মুখোশ বানায়, টুপি অথবা পাগড়ি বানায়, মাঞ্চালা নামের একটি খেলা খেলে। প্রতিবছর ২৪ সেপ্টেম্বর দিনভর এই উৎসব হয়।


মন্তব্য