kalerkantho


ভুল সবই ভুল

টমেটো একপ্রকার সবজি

সবাই সত্যি জানে—এমন অনেক কথা পরে যাচাই করে দেখা গেছে, সেগুলো মিথ্যা। অবসরে সেগুলো আনতে যাচ্ছে পাঠকের গোচরে। লিখেছেন আসমা নুসরাত

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



টমেটো একপ্রকার সবজি

উদ্ভিদবিদ্যা কোনো প্রকারেই মানতে রাজি নয় যে টমেটো সবজি। কনসাইজ অক্সফোর্ড ডিকশনারি অব বোটানি ফলের সংজ্ঞায় বলছে, উদ্ভিদের পাকা বীজকোষ হলো ফল, এর মধ্যে নতুন বীজ মেলে। আর ফল ছাড়া উদ্ভিদের যেসব অংশ ভক্ষনযোগ্য, যেমন পাতা (লেটুস, স্পিনাচ), শেকড় (গাজর, বিট), কাণ্ড (এসপারাগাস), কন্দ (পেঁয়াজ) ও ফুল (ফুলকপি, ব্রকলি) সবই সবজি। টমেটোও পাকা বীজকোষ এবং এর মধ্যে বীজ মেলে, তাই এটি ফল। শসা ও কুমড়াও সে অর্থে ফল। তবে আপেলের কথা উঠলে যেমন একটা মনোলোভা ব্যাপার হয়, টমেটো বা শসায় তা হয় না। না হোক, বৈশিষ্ট্যগুণে টমেটো ফল।

ব্যাপারটি একবার আদালতে গড়িয়েছিল; আমেরিকার আদালতে। সেটি ১৮৮৬ সাল। জন নিক্স নামের এক ব্যক্তি কিছু ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান টেমেটো আমদানি করেছিলেন নিউ ইয়র্কে। বন্দরের কাস্টম অফিসার ১৮৮৩ সালের ট্যারিফ অ্যাক্ট অনুযায়ী আমদানীকৃত সবজির ওপর ১০ শতাংশ হারে কর আরোপ করলেন।

কিন্তু নিক্স জানতেন উদ্ভিদবিদ্যার তত্ত্ব। তিনি গেলেন আদালতে। সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত গড়িয়েছিল ঘটনা। শেষে ১৮৯৩ সালে বিচারপতি হোরাস গ্রে টমেটোকে সবজির দলভুক্ত করে রায় ঘোষণা করেন। গ্রে বলেছিলেন, হ্যাঁ, উদ্ভিদবিদ্যার তত্ত্ব অনুযায়ী এটি ফল। যেমন শসা, গোলমরিচ বা স্কোয়াশও। কিন্তু সাধারণ মানুষ এগুলোকেই সবজি হিসেবে জানে এবং ডিনারে পরিবেশন করে স্যুপ, মাছ বা মাংসের সঙ্গে। ডেজার্ট (ভোজের শেষ কোর্স) হিসেবে টমেটো বা শসার ব্যবহার এখনো জানা যায়নি।

২০০১ সালে অবশ্য ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন উল্টো ঘটনা ঘটিয়েছে। তারা গাজর আর মিষ্টি আলুকে ফলের গোত্রে ফেলেছে, যেহেতু জ্যাম তৈরিতে এগুলো ব্যবহার করা হয়। আরো ঘটনা ঘটিয়েছে ওকলাহোমা। তারা তাদের স্টেট ভেজিটেবল হিসেবে তরমুজের নাম ঘোষণা করেছে। তবে টেনেসি আর ওহাইও বোটানির সঙ্গে তাল মিলিয়েছে। তারা তাদের স্টেট ফ্রুট হিসেবে টমেটোর নাম ঘোষণা করেছে।


মন্তব্য