kalerkantho

'প্রবাসীদের জন্য প্রধানমন্ত্রী ট্রাস্ট ফোর্স তৈরি করেছেন'

এম আবদুল মন্নান, আমিরাত প্রতিনিধি   

৬ মার্চ, ২০১৯ ০৩:০৩ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



'প্রবাসীদের জন্য প্রধানমন্ত্রী ট্রাস্ট ফোর্স তৈরি করেছেন'

ছবি : কালের কণ্ঠ

প্রবাসীদের জন্য প্রধানমন্ত্রী উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন একটি ট্রাস্ট ফোর্স তৈরি করেছেন বলে জানালেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। গত শনিবার রাতে প্রবাসী আওয়ামী পরিবার দুবাই ও উত্তর আমিরাতের উদ্যোগে আয়োজিত সারজাহস্থ রেডিসন ব্লু হল রুমে নাগরিক সংবর্ধনার সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্য কালে মন্ত্রী এই তথ্য জানান। 

তিনি বলেন, এই ট্রাস্ট ফোর্সের মাধ্যমে প্রবাসীদের কিভাবে উন্নয়নের মহাসড়কে সম্পৃক্ত করা যায় সরকার সেই পরিকল্পনাই করছেন। মন্ত্রী বলেন, আমার মন্ত্রণালয় থেকে সকল মিশনগুলোকে বলা হয়েছে সকল প্রবাসীদের একটি ডাটা বেইজ তৈরি করার জন্য এবং কে কিভাবে সরকারকে সহায়তা করতে পারে এই ডাটা বেইজ থেকে বের করা হবে।

সরকার দেশকে এগিয়ে নিতে নানা ধরনের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছেন এরই মধ্যে আগামী ১৭ মার্চ থেকে আমরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী শুরু করবো এবং জন্মশতবার্ষিকী শুরু করবো। এবং জাতির জনকের শতবর্ষ পালনের জন্য এই মধ্যে বিভিন্ন মিশনকে বলা হয়েছে আপনারাও এই আয়োজন বিভিন্নভাবে করবেন আর আমরা সঙ্গে থাকবো। এর একবছর পরে ২০২১ সালে আমরা স্বাধীনতার ৫০ বছর পালন করবো। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রী ২০২১ সালে বাংলাদেশকে উচ্চ আয়ের দেশের কাতারে নিতে দেশকে ভিশন দেখিয়েছেন।

বিভিন্ন পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আমাদের অনেক ব্যবসা, বিনিয়োগ, সম্পদ দরকার। আপনাদের বিভিন্ন রকমের অভিজ্ঞতা আছে এই অভিজ্ঞতা আমরা কাজে লাগিয়ে আপনাদের উন্নয়নের মহাসড়কে আপনাদের সম্পৃক্ত করতে চাই। বক্তব্যকালে মন্ত্রী আমিরাতে বাংলাদেশি শ্রমিদের ভিসা বন্ধ সম্পর্কে বলেন, এই ব্যাপারে রাজপরিবার থেকে ভিসা খোলার নির্দেশ দিয়ে দিয়েছেন। বর্তমানে কিছু অফিসিয়াল প্রক্রিয়াধীনে আছে বলে জানান। 

সংবর্ধনা উদযাপন কমিটির আহবায়ক আব্দুল আলিমের সভাপতিত্বে সাবেক ছাত্রনেতা মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিন চৌধুরী ও হাজী শফিকুল ইসলামের যৌথ পরিচালনায় এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আমিরাতে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত ডা. মোহাম্মদ ইমরান।

অনুষ্ঠানে কন্স্যাল জেনারেল মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন খাঁন, প্রকৌশলী মোহাম্মদ আবুজাফর চৌধুরী, অধ্যপক এম এ ছবুর, ইঞ্জিনিয়ার মনোয়ার হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার জিল্লুর রহমান বক্তব্য রাখেন। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা আমির হোসেন। শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন মৌলানা শফিকুর রহমান। প্রধান অতিথিকে ফুল দিয়ে বরণ করেন তাহের ভুইয়া, আবুল কাশেম, কাছা উদ্দিন কাছা, নুরন্নবী রউশন, এস এ মুনির, কাঁচা উদ্দিন, রহমত আলী, কামরুল হাসান জুয়েল, মোহাম্মদ রাসেল, মোহাম্মদ হামিদ আলী, রফিক মোর্শেদ, মইনুল হোসেন, আব্দুল হক, মাসুদ ফারহান জুয়েল, মোহাম্মদ সেলিম।

এই সময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক সংস্থার মহাপরিচালক এ এফ এম গাউছুল আজম, পশ্চিম এশিয়া বিষয়ক পরিচালক আমানুল হক, পররাষ্ট্র দপ্তর পরিচালক সামিয়া আনজুম, আন্তর্জাতিক সংস্থার পরিচালক সৈয়দ মুনতাসির মামুন, বাংলাদেশ কনস্যুলেট দুবাই এর কমার্শিয়াল কাউন্সিলার ড. রফিক আহাম্মেদ, লেবার কাউন্সিলার ফাতেমা জাহান, প্রথম সচিব পাসপোর্ট ও ভিসা নুরে মাহাবুবা জয়া, প্রথম সচিব লেবার ফকির মোহাম্মদ মনোয়ার হোসেন, আবুধাবী দূতাবাসের প্রথম সচিব জোবায়ের প্রমুখ।

মন্তব্য