kalerkantho


নাইন ইলেভেনের ঘটনায় নিহত বাংলাদেশিদের স্মরণ

বিশেষ প্রতিনিধি, নিউইয়র্ক   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২১:৫৪



নাইন ইলেভেনের ঘটনায় নিহত বাংলাদেশিদের স্মরণ

গোটা বিশ্বকে বদলে দেওয়া নাইন ইলেভেনের সন্ত্রাসী হামলা ঘটনার ১৭ বছর পূর্তিতে নিউইয়র্কে শ্রদ্ধা জানানো হলো সেই হামলায় নিহত ছয় বাংলাদেশির প্রতি।

গতকাল মঙ্গলবার জ্যাকসন হাইটসে আয়োজিত একটি স্মরণসভায় বক্তারা বলেন, গোটা বিশ্বকে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে। প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কের টুইন টাওয়ারে ভয়াবহ সেই সন্ত্রাসী হামলায় ছয় বাংলাদেশিসহ মোট ২৯৭৮ জনের প্রাণহানী হয়।

নিহত বাংলাদেশিরা হলেন, মুক্তাগাছার নূরল হক মিয়া এবং তার স্ত্রী মৌলভীবাজারের শাকিলা ইয়াসমীন, সুনামগঞ্জের সাব্বির আহমেদ, কুমিল্লার মো. শাহজাহান, সিলেটের সালাহউদ্দিন চৌধুরী এবং নোয়াখালীর আবুল কে চৌধুরী।

বাংলাদেশিসহ ভয়ংকর সেই সন্ত্রাসী হামলার শিকার হওয়া ব্যক্তিদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানে স্মরণ অনুষ্ঠানে মোমবাতি প্রজ্বলন ও বিশেষ মোনাজাত করা হয়। জ্যাকসন হাইটসে ডাইভার্সিটি প্লাজায় বহুজাতিক এ কর্মসূচির আয়োজন করে 'ওয়াল্ড হিউম্যান রাইটস ডেভেলপমেন্ট' নামে একটি সংগঠন।

সংগঠনের সভাপতি শাহ শহীদুল হক সাঈদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সন্ত্রাসের নিন্দা, প্রতিবাদ এবং সন্ত্রাসীদের প্রতি ধিক্কার জানিয়ে বক্তব্য দেন আয়োজক সংগঠনের সহ সভাপতি শাহরিয়ার শরীফ আহমেদ, সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের সেক্রেটারি রেজাউল বারি, মহিলা সম্পাদিকা সবিতা দাস ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক উইলি নন্দী।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের পর গীতা থেকে পাঠ করা হয়। দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয় ইমাম কাজী কাউয়ুমের নেতৃত্বে। মোমবাতি প্রজ্বলন কর্মসূচিতে আরো অংশ নেন বাবলী হক, বিনা বর্মণ, নার্গিস রহমান, শাহনাজ বেগম, তামান্না হাসিনা, রওশন আরা বেগম, আফরোজা জাহান, চামেলি গমেজ, ফারহানা আমান, কাজী শফিকুল হকসহ আরও অনেকে।

এ সময় সেদিনের ঘটনায় নিহত বাংলাদেশি ছাড়াও অন্যান্যদের আত্মার শান্তি কামনা করা হয়। বক্তারা বলেন, সারা পৃথিবী থেকে সন্ত্রাসবাদের কালো থাবা নির্মূল করতে হবে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় মানবতার জয় গান গাইতে হবে।



মন্তব্য