kalerkantho


আসামে বাদ পড়াদের ৩৮ লাখই বাঙালি, মুসলমান ১৩ লাখ

অনিতা চৌধুরী, কলকাতা   

১৫ আগস্ট, ২০১৮ ০০:১২



আসামে বাদ পড়াদের ৩৮ লাখই বাঙালি, মুসলমান ১৩ লাখ

মমতা ব্যানার্জি। ফাইল ছবি

প্রায় ২৫ লাখ হিন্দু বাঙালি এবং প্রায় ১৩ লাখ বাঙালি মুসলমান আসামের নাগরিকত্বের তালিকা (এনআরসি) থেকে বাদ পড়েছেন বলে কলকাতায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে দাবি করেছেন মমতা ব্যানার্জি।

মমতা আরো বলেন, 'ন্যাশনাল রেজিস্টার অব সিটিজেনস বা এনআরসি আর কিছুই নয় ... এটি বাঙালিদের বিরুদ্ধে একটা সিদ্ধান্ত। বাংলা ভাষা বলা যেন একটা অপরাধ' বলেছেন মমতা।

গত ৩০ জুলাই আসামে যে এনআরসি প্রকাশ হয়েছে, তাতে স্থান হয়নি ৪০ লাখ মানুষের।

'৪০ লাখ মানুষের মধ্যে যদি ৩৮ লাখ বাঙালি থাকেন, তাহলে বুঝতে হবে যে বাঙালিদের বিরুদ্ধে চক্রান্ত' বলেছেন মমতা।

এনআরসি নিয়ে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে প্রায় রোজ মুখ খুলছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

বিজেপি নেতারা আবার অন্যদিকে বারবার আনছেন 'অবৈধ বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারী'দের কথা। বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ গত শনিবার মমতাকে প্রশ্ন করেন কেন উনি বাংলাদেশি অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের বাঁচাতে চাইছেন।

গতকাল তার প্রেক্ষিতে মমতা বলেন, ইলিশ মাছ, জামদানি শাড়িকে কি বাংলাদেশ থেকে অবৈধ অনুপ্রবেশ বলা যাবে? 
'দিদি এনআরসির বিরোধীতার মাধ্যমে বাঙালিদের এক করতে চাইছেন এবং তাই উনি আজকে বলেন, কিভাবে এনআরসির নামে বাঙালিদের সঙ্গে অন্যায় করা হচ্ছে' বলেছেন মমতার এক ঘনিষ্ঠ তৃণমূল নেতা। 

আসামের বাঙালি সংগঠনের কিছু প্রতিনিধি মঙ্গলবার মমতার সঙ্গে দেখা করেন এবং তাদের দুর্দশার কথা জানান।
আর মমতা তার পরেই এক সাংবাদিক সম্মেলন করেন।

'অমিত শাহ কি নিজের তিন চার প্রজন্মের আগের মানুষদের জন্ম সংক্রান্ত সব তথ্য দিয়ে প্রমান করতে পারবেন যে তারা ভারতীয়?' জানতে চেয়েছেন মমতা।

একইসঙ্গে মমতা বলেছেন, বিজেপি নেতা লাল কৃষ্ণ ‌আদভানি বা অটল বিহারী বাজপেয়ীদের কাছে কি তাদের পূর্ব পুরুষদের তথ্য আছে?

উনি আরও বলেছেন, নেতাজী সুভাষ চন্দ্রর পরিবারের কাছে হয়ত সব তথ্য আছে, কিন্তু মহাত্মা গান্ধীর পরিবারের কাছে কিসব আছে? 

'সেই তথ্য না থাকার মানে তো এটা না যে তারা কম ভারতীয়?' মমতা প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন।



মন্তব্য