kalerkantho


ভুটানের কাপড় ব্যবসায়ীদের আস্থার নাম ঢাকার 'বঙ্গবাজার'

মাহতাব হোসেন, থিম্ফু থেকে   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২২:০২



ভুটানের কাপড় ব্যবসায়ীদের আস্থার নাম ঢাকার 'বঙ্গবাজার'

২১ শে ফেব্রুয়ারি ভুটানের রাজার জন্মদিন। সারাদিন রাজধানী থিম্ফুর সব দোকানপাট বন্ধ ছিল।

কোনো আদেশ নয়, রাজার প্রতি অবিশ্বাস্য রকম সম্মানের নিদর্শন এটা। মঙ্গলবার সকাল থেকেই পুরো ভুটানজুড়ে ছিল সাজসাজ রব। সবখানে আনন্দ আনন্দ একটা ব্যাপার।  

বাংলাদেশে ঈদের দিন যেমন পুরো রাজধানী ফাঁকা হয়ে যায়। ঠিক তেমনি আজ থিম্ফুর রাস্তাঘাট ছিল একেবারে ফাঁকা।  সকালে রাস্তা দেখেই ঈদের সকালের কথা মনে পড়ে গেল।  রাস্তায় একেবারে গাড়িঘোড়া নেই। সবাই জাতীয় স্টেডিয়ামের দিকে গেছে। কেননা রাজার জন্মদিনে স্টেডিয়ামে আয়োজন করা হয়েছে প্যারেড।

সকল স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা আগেরদিন মহড়া দিয়ে গেছে। তাই সকাল থেকেই সবাই স্টেডিয়ামমুখী।

সন্ধ্যার পরে কফি খেতে বেরোলাম। থিম্ফুর দোকানপাট কিছু খুলেছে। অফিসিয়ালি এখানে ৩ দিন ছুটি। তারপরে একটা কফিশপ খোলা পেয়ে গেলাম। কফি শেষ করে একটু হাঁটতে লাগলাম, কিছু কেনা যায় কি না ভাবছি। লা মেরিডিয়ান হোটেল পেরিয়ে একটা কাপড়ের দোকানে ঢুকে পড়লাম। শীতের কাপড়গুলোকে বেশ পরিচিত মনে হচ্ছিল। জিজ্ঞেস করতেই দোকানের মালিক উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে জানালেন, 'দিস ইজ কেম ফ্রম বঙ্গবাজার। '

ঢাকা থেকে শীতের কাপড় আসতেই পারে তাই বলে বঙ্গবাজার? মিসেস কেসি জানালেন তিনি ঢাকার নিউমার্কেট চেনেন, বঙ্গবাজার, গুলিস্তান, চকবাজার ইসলামপুর প্রায়ই যান। তার দোকানের অধিকাংশ কাপড় যে বঙ্গবাজার থেকে নিয়ে আসা সেটাও উচ্ছ্বাস নিয়ে বললেন।  

জানা গেল, থিম্ফুসহ পুরো ভুটানের আস্থার নাম বঙ্গবাজার। কেন? মিসেস কেসি জানালেন, বঙ্গবাজারে অনেক কমদামে শীতের কাপড় পাওয়া যায়, তাই শীতের কাপড়ের জন্য ভুটানের দোকানিরা ঢাকার বঙ্গবাজারে কাপড় কিনতে যান। ভুটানের শীতের কাপড়ের যোগানদাতা বাংলাদেশ ও চীন। কিন্তু দাম কমের কারণে বাংলাদেশের বঙ্গবাজার তাদের প্রথম পছন্দ।


মন্তব্য