kalerkantho


নিউ ইয়র্কে জেনোসাইড একাত্তরের ২৫ মার্চ কালোরাত স্মরণ

সাবেদ সাথী, নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি   

২৭ মার্চ, ২০১৬ ০২:২৪



নিউ ইয়র্কে জেনোসাইড একাত্তরের ২৫ মার্চ কালোরাত স্মরণ

নিউ ইয়র্কে জেনোসাইড একাত্তর ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে স্মরণ করা হলো  একাত্তরের ২৫ মার্চ কালোরাত। গত শনিবার স্বাধীনতা দিবসের প্রথম প্রহরে মোমবাতি জ্বেলে সেই দিনের পাক বাহিনীর বর্বরতার শিকার শহীদদের স্মরণ করেন সংগঠনের নেতা-কর্মিরা। একই সঙ্গে ২৫ মার্চকে ‘আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস’ হিসেবে স্বীকৃতি প্রদানেরও দাবি জানানো হয়।
নিউ ইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসের একটি পার্টি সেন্টারে অনুষ্ঠিত এক সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের প্রধান বাকসুর সাবেক জিএস ড. প্রদীপ রঞ্জন কর। এর আগে এক সমাবেশে অংশ নেন যুক্তরাষ্ট্র মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদ, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির নিউইয়র্ক চ্যাপ্টার, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ, পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদ, বঙ্গমাতা পরিষদ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন।
২৫ মার্চসহ একাত্তরের ৯ মাসের বর্বরতার অসহায় শিকারসহ শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানানোর মধ্য দিয়ে স্থানীয় সময় ২৫ মার্চ শুক্রবার রাত ৯টায় শুরু হয় এ কর্মসূচি। এ সময় নিউ ইয়র্কে বসবাসরত মুক্তিযোদ্ধাদের বিশেষভাবে সম্মান জানানো হয়। ২৬ মার্চের প্রথম প্রহর পর্যন্ত চলে দেশের গান, কবিতা আবৃত্তি এবং মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক আলোচনা। স্থানীয় সময় রাত ১২টা এক মিনিটে গণহত্যায় নিহতদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে কর্মসূচির সমাপ্তি ঘটানো হয়।
এ অনুষ্ঠানে ড. আব্দুল বাতেন, গোলাম মোস্তফা খান মিরাজ, জিএইচ আরজু, সরাফ সরকার, আশরাফুজ্জামান, মোর্শেদা জামান, মুজাহিদ আনসারী, ফাহিম রেজা নূর, আব্দুর রহিম বাদশা, স্বীকৃতি বড়ৃয়া, নূরে আলম জিকু, সবিতা দাস ও  জলি কর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য