kalerkantho

চতুর্থ দিনের মতো অবস্থান

প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাতের অপেক্ষায় নন-এমপিওরা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বারবার আশ্বাসে কাজ না হওয়ায় এবার অনড় অবস্থানে গেছেন নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা। এবার তাঁরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে সুস্পষ্ট ঘোষণা প্রত্যাশা করছেন। দাবি আদায়ে চতুর্থ দিনের মতো গতকাল শনিবারও তাঁরা অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন। রোদ-ধুলা উপেক্ষা করে জাতীয় প্রে সক্লাবের ফটক থেকে কদম ফোয়ারা পর্যন্ত তাঁদের অবস্থান দেখা গেছে।

এর আগে গত শুক্রবার রাতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. সোহরাব হোসাইনের সঙ্গে অফিসার্স ক্লাবে দেখা করে শিক্ষকদের একটি প্রতিনিধিদল। তবে সেখানে ফলপ্রসূ কোনো আলোচনা হয়নি বলে জানিয়েছেন শিক্ষক নেতারা। এর পরও সরকারের ঊর্ধ্বতন মহলের সঙ্গে তাঁরা আলোচনা অব্যাহত রেখেছেন। জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে দিন-রাত শিক্ষকরা অবস্থান করছেন। পলিথিন ও কাগজ বিছিয়ে সব সময়ই রাস্তায় বসে থাকছেন শিক্ষকরা। আর দিনভর নানা স্লোগানে প্রকম্পিত করে তুলছেন প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণ।

এই কর্মসূচির নেতৃত্ব দিচ্ছে বাংলাদেশ নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন। এ সংগঠনের সভাপতি গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘শিক্ষাসচিব আমাদের রাস্তায় না থেকে ক্লাসে ফিরে যেতে অনুরোধ করেছেন। এ ব্যাপারে সরকারের উচ্চমহলে কথা বলার কথা তিনি জানিয়েছেন। কিন্তু আমরা বলেছি, আগে অনেকবার আশ্বাস পেয়েছি, কোনো কাজ হয়নি। এবার এমপিওভুক্তির ঘোষণা ছাড়া বাড়ি ফিরে যাব না।’ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. সোহরাব হোসাইনের কাছে অনুরোধ করা হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

মাহমুদুন্নবী ডলার আরো বলেন, ‘আজ রবিবার শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সঙ্গে সাক্ষাতের চেষ্টা করা হবে। আগে যখন তিনি এমপি ছিলেন, তখন নতুন প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির ব্যাপারে সংসদে তিনি সোচ্চার ছিলেন। এবার তিনি নিজেই শিক্ষামন্ত্রী। তাই আমরা মনে করি, নতুন শিক্ষামন্ত্রীই আমাদের এমপিওভুক্তির ঘোষণা ত্বরান্বিত করতে পারেন।’

 

মন্তব্য