kalerkantho

আমিরাতের বিশ্বমানের হেলথ সিটির পরিকল্পনা রাঙ্গুনিয়ায়

প্রতিনিধিদলের প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন

রাঙ্গুনিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

২৩ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলায় সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকারের অর্থায়নে বিশ্বমানের একটি ‘হেলথ সিটি’ গড়ে তোলার পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। এতে এক ছাতার নিচে আধুনিক বিশেষায়িত হাসপাতাল ছাড়াও মেডিক্যাল কলেজ, ডেন্টাল কলেজ, নার্সিং ইনস্টিটিউট ও ওষুধ কারখানা গড়ে তোলা হবে। বিশেষায়িত হাসপাতালটিতে ক্যান্সার, স্ত্রী ও মাতৃস্বাস্থ্য, শিশুরোগসহ বিভিন্ন চিকিৎসাবিদ্যার আলাদা আলাদা ইউনিট স্থাপনের প্রস্তাব করা হয়েছে। এ লক্ষ্যে গতকাল শুক্রবার রাঙ্গুনিয়ায় প্রকল্প এলাকা ঘুরে দেখেছেন আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূতসহ দুই দেশের শীর্ষ কর্মকর্তারা।

সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকারের দাতব্য সংস্থা শেখ জায়েদ বিন আল নাহিয়ান ফাউন্ডেশনের জন্য বরাদ্দকৃত রাঙ্গুনিয়ায় ১১০ একর পরিত্যক্ত ভূমিতে এই হেলথ সিটি গড়ে উঠছে। ১৯৮৯ সালে আরব আমিরাতের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট শেখ জায়েদ বিন আল নাহিয়ান বাংলাদেশ সফরে এসে হেলিকপ্টার থেকে কর্ণফুলী নদী তীরের সৌন্দর্য দেখে এই এলাকায় একটি প্রাসাদ ও অবকাশ যাপন কেন্দ্র নির্মাণের আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। সেই সূত্রে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ১১০ একরের এই জায়গাটি বরাদ্দ দেন। কিন্তু প্রকল্পটির বাস্তবায়িত হয়নি। অবশেষে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের প্রচষ্টায় আরব আমিরাত সরকার জায়গাটিতে একটি বিশেষায়িত স্বাস্থ্যসেবা কমপ্লেক্স নির্মাণে সক্ষম হয়।

এই লক্ষ্যে গতকাল  সকালে রাঙ্গুনিয়ায় প্রকল্প এলাকাটি পরিদর্শন করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত এইচ ই সাইয়েদ মুহাম্মেদ আল মাহিরি। পরিদর্শনকালে আরব আমিরাতের বিভিন্ন সংস্থার আরো চারজন সদস্য এবং বাংলাদেশ সরকারের উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদল তাঁর সঙ্গে ছিল। এ সময় তারা স্থানীয় প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে মতবিনিময় করে।

আমিরাত রাষ্ট্রদূত প্রকল্প এলাকাটির সীমানাপ্রাচীরসহ বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখেন এবং পরিত্যক্ত জমিটি কাজে লাগিয়ে মানবসেবার কাজে ব্যবহারের ওপর গুরুত্ব দেন। এ সময় প্রকল্প এলাকাসংলগ্ন কর্ণফুলী নদীতীরের নয়নাভিরাম সৌন্দর্য দেখে তিনি বিমোহিত হন।

মন্তব্য