kalerkantho


উপজেলা নির্বাচনের প্রথম ধাপ

চেয়ারম্যান পদে বিনা ভোটে নির্বাচিত হচ্ছেন ১৬ জন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন ১৬ জন। মঙ্গলবার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন অন্য প্রতিদ্বন্দ্বীরা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোয় এ সুযোগ তৈরি হয়েছে। এর মধ্যে জামালপুরে চারজন, সিরাজগঞ্জে তিনজন, রাজশাহী, জয়পুরহাট ও নেত্রকোনায় দুজনসহ অন্য তিন জেলায় একজন করে বিনা ভোটে নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

জামালপুর প্রতিনিধি জানান, মঙ্গলবার জেলার চার উপজেলায় আওয়ামী লীগপ্রার্থীকে চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোখলেছুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন। নির্বাচিতরা হলেন সদরে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হোসেন, মেলান্দহে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি প্রকৌশলী মো. কামরুজ্জামান, মাদারগঞ্জে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমান বেলাল ও সরিষাবাড়ীতে জেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন পাঠান।

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, জেলার আট উপজেলার মধ্যে তিনটিতে চেয়ারম্যান প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন। এর মধ্যে মঙ্গলবার উল্লাপাড়া উপজেলায় ইদ্রিস আলী নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোয় চেয়ারম্যান পদে একক প্রার্থী থাকলেন শফিকুল ইসলাম শফি। অন্যদিকে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় কাজিপুরে খলিলুর রহমান সিরাজী ও সদরে রিয়াজ উদ্দিন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পথে।

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী জানান, জেলার দুটি উপজেলায় আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন। আজ বুধবার তাঁদের নির্বাচিত ঘোষণা করা হবে। দুটি উপজেলার মধ্যে মোহনপুরে তিনজনের মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় একক প্রার্থী আছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস সালাম। অন্যদিকে বাঘায় বিএনপি নেতা আব্দুল্লাহ ও জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক শামসুদ্দিন রেন্টু গতকাল প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নেওয়ায় নির্বাচিত হওয়ার পথে আওয়ামী লীগের লায়েব উদ্দিন লাভলু।

জয়পুরহাট প্রতিনিধি জানান, সদর উপজেলায় কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম সোলায়মান আলী বিনা ভোটে চেয়ারম্যান হচ্ছেন। অন্যদিকে পাঁচবিবিতে মঙ্গলবার দুজন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেওয়ায় একক প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগের মনিরুল শহিদ মণ্ডল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

নেত্রকোনা প্রতিনিধি জানান, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় সদর উপজেলায় অধ্যাপক তফসির উদ্দিন আহম্মেদ ও কেন্দুয়ায় নূরুল ইসলামকে চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে। অ্যাসিস্ট্যান্ট রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

নাটোর প্রতিনিধি জানান, সদর উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান শলিফুল ইসলাম রমজান বিনা ভোটে আবার নির্বাচিত হওয়ার পথে।

লালমনিরহাট প্রতিনিধি জানান, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় পাটগ্রামে আওয়ামী লীগের রুহুল আমিন বাবুল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হচ্ছেন।

পঞ্চগড় প্রতিনিধি জানান, বোদা উপজেলায় মাত্র একজন প্রার্থী রয়েছেন। এই উপজেলায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ফারুক আলম টবি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।



মন্তব্য