kalerkantho


কুমিল্লায় স্কুলছাত্রকে অপহরণের পর হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



কুমিল্লায় তৌহিদ (১৫) নামের এক স্কুলছাত্রকে অপহরণের পর হত্যা করা হয়েছে। অপহরণের পর ওই স্কুলছাত্রের পরিবারের কাছে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার বিকেলে কুমিল্লা শহর থেকে মাজহারুল ও অপু নামে দুই অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

নিহত তৌহিদ জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার কোটবাড়িসংলগ্ন সালমানপুর গ্রামের আবু মুছার ছেলে। সে কোটবাড়ী কারিগরি প্রশিক্ষণ উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

রবিবার রাত ১০টা পর্যন্ত তৌহিদ বাড়ি না ফেরায় পরিবারের লোকজন বিভিন্ন স্থানে তার খোঁজ নিতে থাকে। এরই মধ্যে রাত সাড়ে ১০টার দিকে মোবাইল ফোনে পরিবারের কাছে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা।

তৌহিদের বাবা আবু মুছা জানান, পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবির পর অসহায় হয়ে তিনি সদর দক্ষিণ মডেল থানা পুলিশকে বিষয়টি জানান এবং জিডি করেন। টাকার জন্য সন্তানকে হারাতে হবে—এটা তিনি ভাবতে পারছেন না।

কোটবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘অপহরণকারীরা তৌহিদের পরিবারের কাছে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এতে আমি ওই ছাত্রের অভিভাবক সেজে অপহরণকারীদের সঙ্গে মোবাইলে কথা বলি। মুক্তিপণের টাকা বিকাশের মাধ্যমে দিতে চাইলে তারা নিষেধ করে।’

তাদের দেওয়া ঠিকানা অনুযায়ী গতকাল বিকেলে কুমিল্লা শহরের সাত্তার খান কমপ্লেক্সে তৌহিদের পরিবারের লোকজনকে পাঠিয়ে তাদের অনুসরণ করে পুলিশ।



মন্তব্য