kalerkantho


দেশে চালু হবে মৃত ব্যক্তির কিডনি সংযোজন

আজ ঢাকায় আন্তর্জাতিক সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



ডায়াবেটিস ও কিডনি রোগ, গর্ভকালীন কিডনি রোগ, মৃত ব্যক্তির কিডনি সংযোজন বিষয়ে আজ ঢাকায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে দুই দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক বৈজ্ঞানিক সম্মেলন। একই সঙ্গে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হচ্ছে কিডনি রোগীদের পুষ্টি ব্যবস্থাপনাবিষয়ক কর্মশালা, যাতে দেশের পুষ্টিবিদরা অংশ নেবেন। সম্মেলনটির যৌথ আয়োজক কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট, রয়াল লন্ডল হসপিটাল, কোরিয়ার আনাম ইউনিভার্সিটি, ভাইটালিঙ্ক কোরিয়া, আমেরিকা ওয়াইনি স্টেট ইউনিভার্সিটি এবং ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি অব নেফ্রোলজি (আইএসএন)। সম্মেলন ও কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাতীয় অধ্যাপক ডা. ব্রিগেডিয়ার (অব.) আবদুল মালিক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মূল প্রবন্ধ পাঠ করবেন বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির (বাডাস) সভাপতি অধ্যাপক ডা. এ কে আজাদ খান। এতে দেশ-বিদেশের প্রায় চার শর অধিক কিডনি ও ইউরোলজি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, পুষ্টিবিদ অংশ নেবেন বলে জানা গেছে।

কিডনি ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আর রশীদ গতকাল কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বাংলাদেশে কিডনি বিকল হয়ে বছরে মারা যাচ্ছে ৪০ হাজারের মতো মানুষ। কিন্তু যে হারে মানুষের কিডনি বিকল হচ্ছে সেভাবে দেশে হেমোডায়ালিসিস সেন্টার গড়ে উঠছে না। তাই আমরা সম্মিলিত উদ্যোগ নিয়েছি দেশে মৃত ব্যক্তির কিডনি সংযোজন ব্যবস্থা চালুর।’

অধ্যাপক ডা. হারুন আর রশীদ আরো বলেন, ‘এ মুহূর্তে মৃত ব্যক্তির কিডনি সংযোজন বিষয়ে অভিজ্ঞ কোরিয়ান ট্রান্সপ্লান্ট টিম বাংলাদেশে অবস্থান করছে। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, বিএসএমএমইউ, বারডেম হাসপাতাল, সিএমএইচ, নিউরোসায়েন্সেস হাসপাতালসহ বিভিন্ন ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) আমরা সন্ধান করছি। কোনো মুমূর্ষু রোগীর ব্রেইন ডেইথ ঘোষণার পর রোগীর নিকটাত্মীয়ের সম্মতি পেলে আমরা প্রথমবারের মতো দেশে ক্যাডাভারিক প্রক্রিয়ায় কিডনি ট্রান্সপ্লান্ট শুরু করব।’



মন্তব্য