kalerkantho


প্রতিবন্ধী কোটা বাতিল হয়নি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২২ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



মন্ত্রিপরিষদসচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম জানিয়েছেন, সরকারি চাকরিতে প্রতিবন্ধীদের কোটা বাতিল করা হয়নি। গতকাল সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

ব্রিফিংয়ে প্রতিবন্ধীবিষয়ক কোটা রাখা বা না রাখাসংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদসচিব বলেন, ‘এটা নিয়ে মন্ত্রিসভায় আলোচনা হয়নি। তবে আপনাদের জানার জন্য বলি, আইনে যে প্রভিশন আছে ওটা কিন্তু কার্টেল (বাদ দেওয়া) হয়নি। অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অর্ডার (প্রশাসনিক আদেশ) দিয়ে আইন কখনো সুপারসিড হয় না। (প্রতিবন্ধীদের কোটা আইনানুযায়ী) যা ছিল, তাই আছে।’

মোহাম্মদ শফিউল আলম জানান, রাষ্ট্রপতির ভাষণের খসড়া, গণপ্রতিনিধিত্ব (সংশোধন) আইনের খসড়া, ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) আইনের খসড়া, জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদ আইনের খসড়া, বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র (বিটাক) আইনের নীতিগত অনুমোদন; প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন, ২০১৩ এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তির সুরক্ষা বিধিমালা-২০১৫-এর আলোকে প্রতিবন্ধীবিষয়ক জাতীয় কর্মপরিকল্পনার খসড়ার অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এ ছাড়া পার্বত্য চট্টগ্রাম (ভূমি অধিগ্রহণ) রেগুলেশন (সংশোধন) আইন-২০১৯-এর খসড়া অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদসচিব বলেন, গত আওয়ামী লীগ সরকারের শেষ সময়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের অধিবাসীদের ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষেত্রে সমতলের জনগণের সঙ্গে সমতাবিধানের জন্য যে অধ্যাদেশটি জারি করা হয়েছিল সেটাকেই আইন আকারে আনা হয়েছে।

শফিউল আলম বলেন, প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন, ২০১৩ এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তির সুরক্ষা বিধিমালা-২০১৫-এর আলোকে প্রতিবন্ধীবিষয়ক জাতীয় কর্মপরিকল্পনার খসড়ার অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

মন্ত্রিপরিষদসচিব বলেন, ‘আইন বা বিধিমালার আলোকে সেই ব্যাপারে গাইডলাইন দেওয়া হয়েছে। প্রবেশগম্যতা বা অ্যাকসেসিবিলিটি অর্থাৎ প্রতিবন্ধীরা চলাফেরার ক্ষেত্রে কোন জায়গায় কিভাবে যাবেন সেটা নিয়ে অনেকগুলো বিষয় রাখা আছে।’ সূত্র বাসস।



মন্তব্য