kalerkantho

শহীদ আসাদ স্মরণে বিভিন্ন সংগঠনের আলোচনাসভা

‘১৯৬৯ সালের গণ-আন্দোলনের পথ চলার নায়ক শহীদ আসাদের রক্ত স্বৈরাচার জেনারেল আইয়ুব খানের পতনের দরজা খুলে দিয়েছিল’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২১ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শহীদ আসাদ স্মরণে বিভিন্ন সংগঠনের আলোচনাসভা

শহীদ আসাদ স্মরণে গতকাল রবিবার বিভিন্ন সংগঠন কর্মসূচি পালন করেছে। উনসত্তরের পথ ধরে শোষণ-বঞ্চনার বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যেতে আহ্বান জানিয়েছেন বাম রাজনৈতিক নেতারা।

শহীদ আসাদ দিবস উপলক্ষে গতকাল ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের সামনে শহীদ আসাদ স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা নিবেদন করে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক সংগঠন। এ সময় শহীদ আসাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এ ছাড়া বিভিন্ন স্থানে পৃথক সমাবেশ ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

বাম জোটের সমন্বয়ক ও সিপিবির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলমের সভাপতিত্বে শহীদ আসাদ স্মৃতিস্তম্ভের সামনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বক্তব্য দেন সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, বাসদ (মার্ক্সবাদী) নেতা শুভ্রাংশু চক্রবর্তী, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক প্রমুখ।

বাম জোটের নেতারা বলেন, ১৯৬৯ সালের গণ-আন্দোলনের পথ চলার নায়ক শহীদ আসাদের রক্ত স্বৈরাচার জেনারেল আইয়ুব খানের পতনের দরজা খুলে দিয়েছিল। এরই ধারাবাহিকতায় সত্তরের নির্বাচন, একাত্তরের সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে আমলাতান্ত্রিক পাকিস্তান রাষ্ট্রকে খতম করে বাংলাদেশ রাষ্ট্রের জন্ম হয়। জনগণের রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা পায়। কিন্তু স্বাধীনতার ৪৮ বছর পর হাজার হাজার পুঁজিপতির শোষণ ও আমলাতান্ত্রিক রাষ্ট্র বহাল। মানুষ ভোট ও ভাতের অধিকার থেকে বঞ্চিত। উনসত্তরের শহীদের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হয়নি।

বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির পক্ষ থেকে গতকাল আসাদ স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, বহ্নিশিখা জামালী, মোফাজ্জল হোসেন মোস্তাক, সজীব সরকার রতন, পার্টির ঢাকা মহানগর কমিটির নেতা ইমরান হোসেন, জোনায়েত হোসেনসহ কেন্দ্রীয় মহানগর নেতারা শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।

এ ছাড়া জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট, নয়া গণতান্ত্রিক গণমোর্চা, জাতীয় বিপ্লবী ফ্রন্ট, সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টি, জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চ—এই পাঁচটি সংগঠনের উদ্যোগে শহীদ আসাদ দিবসে পুষ্পমাল্য অর্পণ, এক মিনিট নীরবতা পালন, শপথবাক্য পাঠ ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) এম জাহাঙ্গীর হুসাইনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তৃতা করেন সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির সভাপতি সামসুজ্জোহা, নয়া গণতান্ত্রিক গণমোর্চার সভাপতি জাফর হোসেন, জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চের সভাপতি মাসুদ খান ও জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্টের সহসাধারণ সম্পাদক প্রকাশ দত্ত।

রাজধানীর নয়াপল্টনস্থ যাদু মিয়া মিলনায়তনে শহীদ আসাদ দিবস স্মরণে আলোচনাসভার আয়োজন করেছিল বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী

পার্টি (ন্যাপ)। ঢাকা মহানগর কমিটির এ আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভুইয়া। দলের ঢাকা মহানগর সভাপতি মো. শহীদুননবী ডাবলুর সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় অংশ নেন এনডিপির মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, ন্যাপের ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল ভুইয়া প্রমুখ।

মন্তব্য