kalerkantho


জিয়ার জন্মদিন পালিত

‘পরাজয় ঢাকতে’ আ. লীগের বিজয় উৎসব : ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



আবারও ভোট ডাকাতির অভিযোগ তুলে আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসবকে দলটির ‘পরাজয় ঢাকার’ প্রয়াস বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ‘৩০ ডিসেম্বর তো গণতন্ত্রের পরাজয় হয়েছে, আওয়ামী লীগের সবচেয়ে বড় পরাজয় হয়েছে। কারণ তারা (আওয়ামী লীগ) জনগণ থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এ উৎসব হচ্ছে তাদের (আওয়ামী লীগ) যে পরাজয়, তাকে ঢেকে দেওয়ার জন্য, মানুষের দৃষ্টি অন্যদিকে সরানোর জন্য।’

গতকাল শনিবার সকালে রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসব নিয়ে কথা বলেন মির্জা ফখরুল।

নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে গতকাল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৮৩তম জন্মবার্ষিকী পালন করেছে দলটি। বিএনপির নেতারা রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

একই দিন রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিজয় উৎসব করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিপুল বিজয় লাভ এবং টানা তৃতীয়বার সরকার গঠন উপলক্ষে আওয়ামী লীগ এই উৎসবের আয়োজন করে।

ক্ষমতাসীন দলের সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘গণতন্ত্রের প্রতি আওয়ামী লীগের কোনো শ্রদ্ধা নেই। গণতন্ত্র তারা মুখে বলে; কিন্তু বিশ্বাস করে না। অতীতে একইভাবে আপনাদের মনে আছে, ১৯৭৫ সালে একদলীয় বাকশাল প্রতিষ্ঠা করেছিল সব রাজনৈতিক দলকে নিষিদ্ধ করে দিয়ে, মানুষের বাক্স্বাধীনতাকে হরণ করে নিয়ে।’ তিনি আরো বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানই বহুদলীয় গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিয়ে মানুষের বাক্স্বাধীনতা ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। জিয়াউর রহমানের জন্মদিনে শপথ নিয়েছি আমরা গণতন্ত্রকে মুক্ত করব। কারারুদ্ধ দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে, আমাদের নেতা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে এনে আমরা গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করব।’

গত পরশু (বৃহস্পতিবার) জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বৈঠকে বিএনপি যোগ না দেওয়ায় অনেক প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে।



মন্তব্য