kalerkantho


রংপুর-৫ আসন

সহকারী রিটার্নিং অফিসারকে প্রত্যাহার দাবি জাপা প্রার্থীর

রংপুর অফিস   

১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



রংপুর-৫ (মিঠাপুকুর) আসনের সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মামুন-অর রশীদের প্রত্যাহার দাবি করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রার্থী এস এম ফখর-উজ-জামান জাহাঙ্গীর। গতকাল শনিবার দুপুরে তিনি রিটার্নিং অফিসারের কাছে লিখিত আবেদন জানান। এতে মামুন-অর রশীদকে ওই আসনের এমপি ও আওয়ামী লীগের প্রার্থী এইচ এন আশিকুর রহমানের একান্ত সচিব উল্লেখ করা হয়েছে। যদিও বর্তমানে ওই দায়িত্বে না থাকার দাবি করেছেন ইউএনও।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মিঠাপুকুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুন-অর রশীদকে ২০১৭ সালের ২২ নভেম্বর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সংসদ সদস্য এইচ এন আশিকুর রহমানের একান্ত সচিব হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মামুন-অর রশীদ সহকারী রিটার্নিং অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে তিনি মিঠাপুকুরে উপজেলায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

রংপুর রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক এনামুল হাবিব বরাবর আবেদনে জাপার প্রার্থী এস এম ফখর-উজ-জামান বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী এইচ এন আশিকুর রহমান ইচ্ছামতো প্রশাসনকে ব্যবহার করছেন। একান্ত সচিবকে সহকারী রিটার্নিং অফিসার হিসেবে নিয়োগ দিয়ে নির্বাচনী মাঠে প্রভাব খাটাচ্ছেন। সংগত কারণেই ওই সহকারী রিটার্নিং অফিসারের মাধ্যমে এ আসনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি এবং অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্ভব নয়।

এ বিষয়ে মিঠাপুকুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মামুন-অর রশীদ গতকাল সন্ধ্যায় কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘২০১৭ সালের ২২ নভেম্বর প্রজ্ঞাপনে আমাকে এমপি এইচ এন আশিকুর রহমানের একান্ত সচিব নিয়োগ দেওয়া হয়। তবে বিষয়টি এমপি মহোদয়ের অজ্ঞাতসারে হয়েছে। পরবর্তীতে তিনি আমাকে পছন্দ না করায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব সেলিম হোসেনকে তাঁর একান্ত সচিব হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়।’

 



মন্তব্য