kalerkantho


আসন পেল জামায়াত

মনির খান বিএনপি ছাড়লেন, ‘জীবনের অ্যাকসিডেন্ট ছিল’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বিএনপির সব ধরনের সাংগঠনিক পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন দলটির সহসংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক সংগীতশিল্পী মনির খান। তিনি বলেছেন, ‘আমি জনগণের দাবিতে, আমার ভক্তদের দাবিতে রাজনীতির মাঠ থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়ে আবার সংগীতচর্চা শুরু করব। মাঝখানে যে কয়টি দিন, যে কয়টি বছর রাজনীতির সঙ্গে সংযুক্ত থেকেছি, এটি আমার জীবনের অ্যাকসিডেন্ট ছিল। আমার ভুল ছিল। এই ভুলের জন্য আমি বাংলাদেশের সকল মানুষের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী।’ গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বিএনপি থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঝিনাইদহ-৩ (মহেশপুর- কোটচাঁদপুর) আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন মনির খান। প্রাথমিকভাবে দলের মনোনয়নের চিঠি পেয়ে জমাও দিয়েছিলেন। কিন্তু চূড়ান্তভাবে আসনটি জামায়াতকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আসনটিতে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করবেন ঝিনাইদহ জেলা জামায়াতের সেক্রেটারি মতিয়ার রহমান।

মনির খান বলেন, ‘আমি বাংলাদেশের একজন জাতীয় সংগীতশিল্পী। শহীদ জিয়ার আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে খালেদা জিয়ার আহ্বানে সাড়া দিয়ে জিয়া সাংস্কৃতিক সংগঠনের (জিসাস) মহাসচিব হিসেবে দলে যোগদান করি। পরবর্তী সময়ে আমার সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে অনুপ্রাণিত হয়ে আমাকে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থার (জাসাস) সাধারণ সম্পাদক ও বিএনপির সহসংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। সংগীত কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি আমি দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করায় খালেদা জিয়া আমাকে আমার নির্বাচনী এলাকায় কাজ করার নির্দেশ দেন। আমি সব সময় এলাকার সর্বস্তরের নেতাকর্মী ও জনসাধারণের পাশে থেকে আমার নির্বাচনী এলাকার মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করেছি।’



মন্তব্য