kalerkantho


মৎস্যমন্ত্রীর জামাতাকে ঢাকায় স্থানান্তর

রাজনৈতিক কারণেই প্রভাষকে গুলি!

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



নির্বাচন সামনে রেখে রাজনৈতিক কারণে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দের জামাতা ও বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তা প্রভাষ দত্তকে গুলি করা হয়েছে বলে মনে করছে তাঁর পরিবার। গতকাল রবিবার দুপুরে আহত প্রভাষকে এয়ার অ্যাম্বুল্যান্সে করে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে। গত শনিবার ভোরে অস্ত্রোপচারের পর আশঙ্কামুক্ত হলেও হঠাৎ করে কিডনিসহ বেশ কিছু সমস্যা দেখা দেওয়ায় তাঁকে ঢাকায় স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। পরে তাঁকে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, গত শুক্রবার রাতে নিজ বাসায় গুলিবিদ্ধ হন বাংলাদেশ ব্যাংক খুলনা শাখার ডিজিএম প্রভাষ দত্ত। নগরীর বকশিপাড়ায় নিজের বাড়িতে মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা তাঁর ওপর গুলি চালিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় প্রভাষ দত্ত নিজেই বাদী হয়ে গত শনিবার খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা থানায় অজ্ঞাতপরিচয় আসামি করে একটি অভিযোগ দাখিল করেছেন। তাঁকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলাটি চালানো হয় বলে দাবি করা হলেও নেপথ্যের কারণ সম্পর্কে কেউ কিছু নিশ্চিত হতে পারেনি। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করলেও কাউকে আটক বা কোনো ক্লু দিতে পারেনি। তবে রাজনৈতিক কারণই মুখ্য বলে মনে করেন প্রভাষের নিকটাত্মীয় অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ। গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় তিনি বলেন, নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর ঘটনাটি ঘটায় এর পেছনে রাজনৈতিক কারণ থাকতে পারে—এ ধারণা করাটাই স্বাভাবিক। আর প্রভাষের কোনো ব্যক্তিগত শত্রু আছে, এটা এখনো কেউ বলতে পারেনি। ফলে স্বাভাবিকভাবেই নির্বাচনের বিষয়টি সামনে আসছে।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা দাবি করেন, নির্বাচন সামনে রেখে ভয়ভীতি দেখানোর জন্য এটা ঘটানো হয়েছে। এতে একাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নারায়ণ চন্দ্র চন্দকে রীতিমতো হুমকি দেওয়া হলো।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ বলেন, কোন কারণে কারা ঘটনাটি ঘটিয়েছে তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।



মন্তব্য