kalerkantho


ওবায়দুল কাদের বললেন

বিদেশি পর্যবেক্ষকদের জন্য ভোট পেছানোর দাবি হাস্যকর

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বিদেশি পর্যবেক্ষকদের জন্য ভোট পেছানোর দাবি হাস্যকর

বিদেশি পর্যবেক্ষক আসতে পারবে না বলে একাদশ সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণের তারিখ পেছানোর বিএনপির দাবি হাস্যকর বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘কোনো কারণে যদি বিদেশি পর্যবেক্ষক আসতে না পারে, সে জন্য কি নির্বাচন পেছাতে হবে? কোনো বিদেশি পর্যবেক্ষকের ব্যক্তিগত কারণে আসতে বিলম্ব হলে একটি রাষ্ট্র তার নির্বাচন পেছাতে পারে না। বিদেশি পর্যবেক্ষকদের জন্য জাতীয় নির্বাচনের তারিখ পেছাতে হবে এটা হাস্যকর, অবান্তর, অবাস্তব, ভিত্তিহীন ও অযৌক্তিক দাবি।’

গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

এর আগে গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী বলেন, ২৫ ডিসেম্বর খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের বড়দিন। এরপর ইংরেজি নববর্ষ। বিদেশি পর্যবেক্ষক ও কূটনীতিবিদরা অনেকেই এ সময় ছুটিতে থাকেন। তাঁদের দৃষ্টির অন্তরালে একটি বড় ভোট চুরির নির্বাচন করতে সরকারের কৌশলী নির্দেশে ৩০ ডিসেম্বর ভোটের দিন নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

রিজভীর এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দেশটাকে ছোট ভাববেন না, দেশটাকে ওপরে তুলে দিন। আমাদের দেশ সবার ওপরে। আমরা কারো চেয়ে ছোট না। বন্ধু দেশ আমাদের অসংখ্য আছে। কিন্তু মর্যাদায় আমরা কারো চেয়ে ছোট না।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিএনপি যদি আন্দোলনের চিন্তা করে তাহলে দেশের জনগণ তাদের প্রতিরোধ করবে। জনগণ এখন নির্বাচনের মুডে রয়েছে। তফসিল ঘোষণার পর নির্বাচনসংক্রান্ত সব সিদ্ধান্ত নির্বাচন কমিশনের।’

নির্বাচনে শরিকদের সঙ্গে আসন ভাগাভাগি প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আগে নিজেদের মনোনয়ন নিশ্চিত করে পরে দলীয় আসন বণ্টন।’

সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের জানান, আওয়ামী লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডে দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক, কর্নেল (অব.) ফারুক খান ও উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন অস্থায়ী সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। বোর্ডের তিনজন সদস্য সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ও ড. আলাউদ্দিন আহমেদ অসুস্থ থাকায় তাঁদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।



মন্তব্য