kalerkantho


রোহিঙ্গা শিবিরে জঙ্গিবাদী অর্থায়নের অভিযোগে আট এনজিওকর্মী গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবিরে জঙ্গিবাদী অর্থায়নের অভিযোগে আট এনজিওকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট (সিটিটিসি)। গত বুধবার রাতে রাজধানীর মিরপুর ডিওএইচএস এলাকার ৯ নম্বর রোডের ৬৪৪ নম্বর বাড়ির ‘স্মল কাইন্ডনেস বাংলাদেশ (এসকেবি)’ নামের এনজিও অফিস থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলো সাফ ওয়ানুর রহমান, সুলতান মাহমুদ, নজরুল ইসলাম, আবু তাহের, ইলিয়াস মৃধা, আশরাফুল আলম, হাসনাইন ও কামরুল। গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে ১৪ লাখ টাকা, একটি ল্যাপটপ, আটটি সিপিইউ, আটটি বিভিন্ন ব্যাংকের চেক বই ও ১০টি মোবাইল ফোনসেট জব্দ করা হয়। সিটিটিসির দাবি, গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা আনসার-আল-ইসলামের সদস্য। এনজিওর মাধ্যমে মানবিক সহায়তার নামে তারা রোহিঙ্গা শিবিরে অর্থায়ন ও উগ্রবাদের প্রচার করছিল।

সিটিটিসির উপকমিশনার (ডিসি) মহিবুল ইসলাম জানান, আটক ব্যক্তিরা আনসার-আল-ইসলামের সদস্য। এই এনজিওর কার্যক্রম আনসার-আল-ইসলামের মতাদর্শের অনুসারীদের দ্বারা পরিচালিত হচ্ছিল। দীর্ঘদিন ধরে কক্সবাজারে রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে এনজিওভিত্তিক হিউম্যানিটারিয়ান ওয়ার্কের ছদ্মাবরণে এসকেবির সদস্যরা জঙ্গিবাদে অর্থায়ন ও রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মধ্যে উগ্রবাদের প্রচারণা চালাচ্ছিল।



মন্তব্য