kalerkantho


চট্টগ্রাম সরকারি কলেজে ছাত্রলীগের কার্যক্রম বন্ধ

দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২২ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



অস্থিতিশীল পরিস্থিতি এড়াতে চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নতুন কমিটির সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটি। সেই সঙ্গে সাম্প্রতিক সময়ের অস্থিতিশীল পরিস্থিতির কারণ তদন্তে দুই সদস্যের একটি কমিটিও করা হয়েছে।

গতকাল রবিবার বিকেলে ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী যৌথভাবে এসব সিদ্ধান্ত নেন। বিষয়গুলো চট্টগ্রাম কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নতুন কমিটিকে জানানো হয়েছে।

তবে কলেজ ছাত্রলীগের নেতারা কেন্দ্র থেকে হঠাৎ করে কমিটির কার্যক্রম বন্ধ রাখার বিষয়টি যথাযথ হয়নি বলে দাবি করেছেন।

জানতে চাইলে সরকারি চট্টগ্রাম কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদুল করিম গত রাতে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমাদের নতুন কমিটি ঘোষণার পর পদবঞ্চিতদের একটি পক্ষ বিক্ষোভ করেছে। তারা অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চেয়েছিল। কিন্তু ওই ঘটনাগুলোর পর গত প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে ক্যাম্পাস স্বাভাবিক। কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা নেই। এই অবস্থায় হঠাৎ করে কেন যে আমাদের কমিটির কার্যক্রম আপাতত না করতে বলেছেন তাতে আমরা হতবাক। তবে কমিটি স্থগিত করেনি।’

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের যৌথ স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, দুই সদস্যের যে তদন্ত কমিটি করা হয়েছে তাঁরা হলেন সংগঠনের গত কমিটির (কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ) উপ-অর্থ বিষয়ক সম্পাদক সৃজন ভূইয়া ও উপ-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বিষয়ক সম্পাদক আসিফ ইকবাল অনীক।

তদন্ত কমিটির বিষয়ে জানতে চাইলে সৃজন ভূইয়া গত রাতে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমাদের দুইজনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তদন্ত করতে। ঢাকায় আজ (গতকাল) বিকেল ৫টা থেকে সাড়ে ৫টার দিকে কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের উপস্থিতিতে এক জরুরি সভায় এসব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।’ তিনি জানান, সাম্প্রতিক অস্থিতিশীল পরিস্থিতির নিরিখে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত কলেজ ক্যাম্পাসে সব ধরনের সভা-সমাবেশ না করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১৭ সেপ্টেম্বর রাতে চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের ২৫ সদস্যের আংশিক কমিটির অনুমোদন দেন মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীর। কমিটিতে মাহমুদুল করিমকে সভাপতি ও সুভাষ মল্লিক সবুজকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। মাহমুদুল প্রয়াত নগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর এবং সবুজ প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলামের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।



মন্তব্য