kalerkantho


ক্যামেরা উঁচিয়ে শহিদুল আলমের মুক্তি দাবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

১৭ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



ক্যামেরা উঁচিয়ে শহিদুল আলমের মুক্তি দাবি

শহিদুল আলমের মুক্তির দাবিতে গতকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে ‘ক্যামেরা হাতে প্রতিবাদ’ সমাবেশ করে আলোকচিত্রীরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

ক্যামেরা উঁচিয়ে আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের মুক্তির দাবি করেছেন আলোকচিত্রীরা। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে ‘ক্যামেরা হাতে প্রতিবাদ’ সমাবেশে এই দাবি জানানো হয়। ‘শহিদুল আলমের মুক্তির দাবিতে আলোকচিত্রীবৃন্দ’ এই প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে।

সমাবেশের শুরুতে দুই মিনিট ক্যামেরা উঁচিয়ে ধরে শহিদুল আলমের আটকের প্রতিবাদ জানানো হয়। আলোকচিত্রী নাসির আলী মামুন, ইউসুফ তুষার, মুঈনউদ্দীন আহমেদ, পাঠশালার প্রধান তানভীর মুরাদ তপু, আমিনুজ্জামান, সুদীপ্ত সালামসহ অর্ধশতাধিক আলোকচিত্রী প্রতিবাদ সমাবেশে অংশ নেন। গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি প্রতিবাদ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন।

তানভীর মুরাদ তপু বলেন, ‘আমি মনে করি শহিদুল আলমের জেলে থাকাটা জেলে থাকা নয়। কারণ তাঁর কণ্ঠস্বর রুদ্ধ করা যায়নি। শহিদুল আলমই আমাদের শিখিয়েছেন অন্যায়ের বিরুদ্ধে কিভাবে প্রতিবাদ করতে হয়।’

নাসির আলী মামুন বলেন, ‘আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানাচ্ছি। শহিদুল আলম বাংলাদেশের আলোকচিত্রশিল্পকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে গেছেন। তাঁর প্রতিষ্ঠিত দৃক ও পাঠশালা দেশের আলোকচিত্রশিল্পে নবজাগরণ এনেছে।’ 

নিরাপদ সড়ক আন্দোলন চলাকালে একটি আন্তর্জাতিক টিভি চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাত্কারের কারণে গত ৫ আগস্ট শহিদুল আলম গ্রেপ্তার হন। পরে তাঁর বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়।



মন্তব্য