kalerkantho


কালুখালীতে দুর্গাপূজার প্রতিমা ভাঙচুর

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

১৬ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার বিশই সাওরাইল গ্রামের দুর্গাপূজার মণ্ডপে প্রতিমা ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। গত রবিবার রাতে অজ্ঞাতপরিচয় দুর্বৃত্তরা এ ভাঙচুর চালায়।

গতকাল সোমবার দুপুরে ওই মন্দিরে গিয়ে দেখা যায়, ভেঙে ফেলা মূর্তিগুলো মেরামত করছেন নির্মাতা পলাশ কুমার পাল। তিনি জানান, গত রবিবার তিনি প্রতিমাগুলো নির্মাণ ও সাজসজ্জার কাজ শেষে করে ঝিনাইদহের শৈলকুপার বাড়িতে চলে যান। গতকাল সকালে এ খবর পান। এ কারণে তিনি পুনরায় এখানে এসেছেন এবং ভেঙে ফেলা প্রতিমাগুলো মেরামতের কাজ করছেন। তিনি আরো জানান, দুর্বৃত্তরা দুর্গামূর্তির একটি হাত, লক্ষ্মীর মাথা, সিংহের নাক, কার্তিকের দুটি হাত, ময়ূরের গলা, সরস্বতীর হাত, হাঁসের গলা, গণেশমূর্তির শুঁড় ও চার হাত ভাঙচুর করেছে।

মন্দির কমিটির সভাপতি তুষার দাস জানান, রাত ৩টার পর অজ্ঞাতপরিচয় দুর্বৃত্তরা মণ্ডপে প্রবেশ করে প্রতিমাগুলো ভাঙচুর করেছে। তবে কারা কী কারণে ভাঙচুর করেছে, তা তিনি বলতে পারেননি।

খবর পেয়ে গতকাল সকালে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক মো. শওকত আলী, পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি বিপিএম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাকিব খান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কাজী সাইফুল ইসলামসহ প্রশাসনের কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধি এবং জেলা পূজা উদ্‌যাপন কমিটি ও হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

জেলা প্রশাসক বলেন, পাশেই আরেকটি পুরনো মন্দির রয়েছে। সেখানে এবার আর পূজার আয়োজন করা হয়নি। কিছু দরিদ্র মানুষ প্রথমবারের মতো নতুন মণ্ডপে পূজার আয়োজন করেছে। মন্দিরের জমি বিক্রি নিয়ে স্থানীয় হিন্দুদের মধ্যে বিরোধ রয়েছে। তিনি জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিমা মেরামতের জন্য ৫০০ কেজি চাল বরাদ্দের ঘোষণা দেন। পুলিশ সুপার জানান, মন্দিরের জমি নিয়ে বিরোধসহ অন্যান্য কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে এবং দুর্বৃত্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।



মন্তব্য