kalerkantho


বিমানযাত্রায় সুস্থ থাকতে...

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বিমানযাত্রায় সুস্থ থাকতে...

বিমানযাত্রায় মোশন সিকনেসের কারণে অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়েন। কিংবা অসুস্থ বোধ করেন। এ ছাড়া বিমানযাত্রায় একজন মানুষের সুস্থতা নষ্টের আরো কারণ আছে। এমন পরিস্থিতি এড়ানোর উপায় নিয়েই আজকের টিপস—

প্রস্তুতি নিন

মোশন সিকনেস বা জীবাণু থেকে বাঁচতে সঙ্গে জিনিসপত্র থাকা চাই। ছোট এক বোতল হ্যান্ড স্যানিটাইজার এবং পরিষ্কার করার কাপড় বা তুলা নিয়ে নিন। আসন গ্রহণের পর স্যানিটাইজার দিয়ে দুই হাত মুছে নিন। ভ্রমণবান্ধব বালিশ পাওয়া যায়। একটি ট্রাভেল পিলো কিনে নিন। প্রতিবার বাথরুম ব্যবহারের পর দুই হাত স্যানিটাইজার দিয়ে মুছে নিন। এতে জীবাণু ছড়াবে না। যদি মোশন সিকনেসের সমস্যা থাকে তাহলে প্রয়োজনীয় দু-একটা ওষুধ হাতব্যাগে রাখুন। বাড়তি বার্ফ ব্যাগ নিয়ে নিন। যদি বিমানে না থাকে তাহলে কাজে দেবে।

নিজের জিনিস ব্যবহার করুন

অনেক সময় একটু আরাম-আয়েশের জন্য বিমান থেকেই কম্বল বা বালিশ দেওয়া হয়। কিন্তু নিজের ছোট একটা পিলো বা ব্ল্যাংকেট থাকলে আর চিন্তা নেই। অন্যের ব্যবহৃত এসব জিনিসে জীবাণু থাকে। তাই এড়িয়ে চলাই ভালো। যদি শীতকাল থাকে বা উষ্ণতার দরকার হয়—একটা গরম কাপড় নিতে পারেন।

দেহকে পরিপূর্ণ রাখুন

বিমানে চড়ার আগে স্বাস্থ্যকর খাবার খেয়ে নিন। নিজের যত্ন নিতে হবে। এ ছাড়া পানি খেতে হবে পর্যাপ্ত। পানিশূন্য থাকলে অসুস্থ হতে বেশি সময় লাগবে না। রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বৃদ্ধি করে এমন খাবার খেয়ে নিন। ভিটামিন ‘সি’ সমৃদ্ধ সাইট্রাস জাতীয় ফল খান। ফ্লাইটে ওঠার আগে পছন্দের স্ন্যাক্স উপভোগ করতে পারেন। আর অবশ্যই পেট ভরে খাবেন না। মোশন সিকনেসে ভোগা অনেক মানুষই বলেন, হালকা ও শুকনো খাবার বেশ উপকারী। এতে পেট বেশ খালি থাকে এবং বমি ভাব আসে না। তবে যা-ই খান না কেন, কম পরিমাণে খাবেন।

বিমানবন্দরেও সচেতন থাকুন

এয়ারপোর্টে নিরাপত্তাসংক্রান্ত বিষয়গুলো কিন্তু স্বাস্থ্যের জন্য হুমকি। চেকিংয়ের জন্য আপনাকে যাবতীয় জিনিসপত্র বিনে রাখতেই হবে। এসব বিন বাথরুমের চেয়েও বেশি অস্বাস্থ্যকর। কাজেই এসব ঝক্কি শেষ হওয়ার পর স্যানিটাইজার দিয়ে ছোটোখাট ব্যাগ বা জিনিসগুলো পরিষ্কার করে নিন। নয়তো মারাত্মক জীবাণুতে আক্রান্ত হতে পারেন। বিমানবন্দরের ইলেকট্রনিক টিকিটিং মেশিন, কিপ্যাড, রেস্টরুমও ব্যাকটেরিয়ায় পূর্ণ। কাজেই এসব স্থানেও সাবধান থাকতে হবে। যেকোনো খাবার খাওয়ার আগে অবশ্যই হাত ধুয়ে নেবেন।

 

চিটশিট অবলম্বনে সাকিব সিকান্দার



মন্তব্য