kalerkantho


রাজশাহীতে যৌতুকের জন্য স্ত্রী হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী হত্যার দায়ে বাগমারার এক ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছেন রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল। গতকাল বুধবার দুপুরে রাজশাহীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২-এর বিচারক নিলুফার সুলতানা এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আব্দুল কুদ্দুস (৩৫) বাগমারা উপজেলার সাইধারা গ্রামের মেহের আলীর ছেলে। তবে এ মামলায় কুদ্দুসের মা মাসেকা বেওয়াসহ (৫০) আরো তিন আসামির অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাঁদের খালাস দেওয়া হয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ইসমত আরা জানান, ২০০৫ সালের দিকে কুদ্দুসের সঙ্গে নওগাঁর মান্দা উপজেলার শিলগ্রামের আক্কাছ আলী প্রামাণিকের মেয়ে শামিমা আক্তারের (২৪) বিয়ে হয়। বিয়ের ৯ বছরের মাথায় কুদ্দুস মিশুক কেনার জন্য তাঁর স্ত্রীর কাছে ৬০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করে। ওই যৌতুকের টাকার জন্য মাঝেমধ্যেই স্ত্রী শামিমাকে নির্যাতন করত। ২০১৪ সালের ৪ নভেম্বর কুদ্দুস তার স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা করে। ঘটনাটি আত্মহত্যা বলে প্রচার করতে স্ত্রীর মরদেহ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে। পরে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে শামিমাকে হত্যার বিষয়টি উঠে আসে।



মন্তব্য