kalerkantho


মির্জা ফখরুল বললেন

জনগণকে সম্পৃক্ত করে আন্দোলন জোরদারের পরামর্শ দিয়েছেন তারেক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



জাতিসংঘের কাছে তুলে ধরা বিভিন্ন বিষয় ও তাদের বক্তব্য এবং বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের দিকনির্দেশনা দলের স্থায়ী কমিটির নেতাদের জানিয়েছেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। নেতাদের তিনি জানান, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ঐক্যবদ্ধ থেকে জনগণকে সম্পৃক্ত করে আন্দোলন জোরদারের পরামর্শ দিয়েছেন। একই সঙ্গে নির্বাচনের প্রস্তুতিও নিতে বলেছেন তিনি।

গতকাল সোমবার রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এসব কথা জানান ফখরুল। পরে কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন তিনি।

দলের স্থায়ী কমিটির এক সদস্য নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, তারেক রহমান দলের নেতাদের বলেছেন, সরকারবিরোধী যে আন্দোলন হবে তা বিএনপি সর্বশক্তি প্রয়োগ করেই করবে। কিন্তু সেখানে সর্বোচ্চ জনসম্পৃক্ততা রাখতে বলেছেন তিনি। একই সঙ্গে বৃহত্তর জাতীয় যে ঐক্যের প্রক্রিয়া চলছে, সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে তাঁর পরামর্শ নিতে স্থায়ী কমিটির সদস্যদের বলেছেন। এ ছাড়া কারাবন্দি দলীয় চেয়ারপারসনের মামলার সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে নিয়মিত খোঁজখবর নেওয়ার পাশাপাশি এ ইস্যুতে আরো কর্মসূচির রাখারও পরামর্শ দিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান।

সংবাদ সম্মেলনে ফখরুল সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘জাতিসংঘের কাছে দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি বলেছি। তাঁরা এ ব্যাপারে কিছু জানতে চেয়েছেন, সেগুলো আমরা জানিয়েছি। ওনারা বিষয়গুলো দেখবেন বলেছেন।’

জাতিসংঘ মহাসচিবের আমন্ত্রণে তাঁর সফর হয়েছে দাবি করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এটা পরিষ্কার, জাতিসংঘের মহাসচিবের আমন্ত্রণে আমি জাতিসংঘে গিয়েছিলাম। যেহেতু কফি আনান (সাবেক সেক্রেটারি জেনারেল) সাহেবের শেষকৃত্য অনুষ্ঠান ছিল, উনি (বর্তমান সেক্রেটারি জেনারেল) চলে গিয়েছিলেন। আমরা জাতিসংঘের যিনি দায়িত্বপ্রাপ্ত অ্যাসিস্টেন্ট সেক্রেটারি জেনারেল, তাঁর সঙ্গে কথা বলেছি।’

লন্ডনে তারেক রহমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়েছে কি না—এমন প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘হ্যাঁ ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের সঙ্গে লন্ডনে আমার দেখা হয়েছে। আলোচনা হয়েছে দেশের পরিস্থিতি সম্পর্কে।’

জাতিসংঘ থেকে দেশে ফেরার পর এই প্রথম সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বললেন ফখরুল।

এর আগে রাতে জাতীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক হয়। এতে স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, মাহবুবুর রহমান, রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

 

 



মন্তব্য