kalerkantho


ডাকসু নির্বাচন

হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে ঢাবির আপিল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



হাইকোর্ট ছয় মাসের মধ্যে ডাকসু নির্বাচন করার যে নির্দেশ দিয়েছিলেন এর বিরুদ্ধে ঢাবি প্রশাসন লিভ টু আপিল আবেদন দাখিল করেছে। আপিলের যুক্তি হিসেবে বলা হয়, এই রায় মেনে এ মুহূর্তে ডাকসু নির্বাচন করা হলে দেশে অরাজক পরিস্থিতির সৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এতে দেশের গণতন্ত্র বাধাগ্রস্ত হবে। আবেদনে আরো বলা হয়েছে, ডাকসু নির্বাচন করার একক ক্ষমতা ঢাবি ভিসির। এই ক্ষমতার বিষয়ে হাইকোর্ট রায় দিতে পারেন না। তাই এ রায় বাতিল হওয়া দরকার। গতকাল সোমবার আপিল করার বিষয়টি আদালতে তুলে ধরেন শিক্ষার্থীদের পক্ষে রিটকারী মনজিল মোরসেদ।

আদালত অবমাননার অভিযোগে ঢাবি ভিসি ড. মো. আক্তারুজ্জামান, প্রক্টর ড. এ কে এম গোলাম রাব্বানী এবং ট্রেজারার ড. কামাল উদ্দিনের বিরুদ্ধে করা আবেদনের ওপর গতকাল হাইকোর্টে শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। এ নিয়ে উভয় পক্ষের বাদানুবাদ শুরু হলে আদালত আবেদনটিই কার্যতালিকা থেকে বাদ দেওয়ার নির্দেশ দেন।

সাত দিনের মধ্যে ডাকসু নির্বাচন করার পদক্ষেপ নিতে গত ৪ সেপ্টেম্বর ঢাবি ভিসিসহ তিনজনকে লিগ্যাল নোটিশ দেন মনজিল মোরসেদ। নোটিশের জবাব না পেয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার আবেদন করেন তিনি। বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের আদালতে গতকাল আবেদনটি শুনানির জন্য উত্থাপিত হলে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম কয়েকটি সংবাদপত্র আদালতকে দেখিয়ে বলেন, সামনে জাতীয় নির্বাচন। ডাকসু নির্বাচন করতে চেয়ে সেখানে কোনো বিশৃঙ্খলা হলে সেটা জাতীয় নির্বাচনের ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে। এর বিরোধিতা করে রিট আবেদনকারীপক্ষে অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ বলেন, আদালত অবমাননার অভিযোগে এই আবেদন।

 

 



মন্তব্য