kalerkantho


তিন জেলায় তিন শিশু-কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



ময়মনসিংহ, রাজবাড়ী ও শেরপুরে পৃথক ঘটনায় তিন শিশু-কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগ অনুযায়ী, ময়মনসিংহের নান্দাইলে এক কিশোরীকে অপহরণের পর তিন দিন আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়। রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক রাজমিস্ত্রির বিরুদ্ধে। এ ছাড়া শেরপুরের নকলায় সাত বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছে একজন। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের খবরে—

ময়মনসিংহ থেকে আঞ্চলিক প্রতিনিধি জানান, নান্দাইলে এক কিশোরীকে (১৫) অপহরণ করে তিন দিন ধরে একাধিক স্থানে আটকে রেখে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। ভুক্তভোগী কিশোরীর বাড়ি নান্দাইল উপজেলার সিংরইল ইউনিয়নে। তার বাবার ভাষ্য, গত বৃহস্পতিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় তিনি বাড়ি ছিলেন না। তখন সিংরইল হিন্দুপাড়া গ্রামের মানিক মিয়া (৩০) তাঁর মেয়েকে তুলে নিয়ে যায়। তিন দিন পর কিশোরগঞ্জ শহরের একটি বাসা থেকে তিনি মেয়েকে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে আসেন। পরে মেয়ের মুখে নির্যাতনের কথা শুনে মানিককে ধরে পুলিশে খবর দেন এবং মামলা করেন। নান্দাইল থানার এসআই মো. আবদুস ছাত্তার জানান, মানিক থানায় আছে।

এদিকে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার একটি স্টুডিওতে ছবি তোলার সময় মাদরাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টায় মোশাররফ হোসেন নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এসআই মো. আবদুল করিম।

রাজবাড়ী প্রতিনিধি জানান, বালিয়াকান্দি উপজেলায় রাজমিস্ত্রি এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই ছাত্রীকে গতকাল রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভুক্তভোগীর পরিবারের অভিযোগ, তাদের বাড়িতে কয়েক মাস আগে বারমল্লিকা গ্রামের আকছেদ আলী (১৮) ও রাসেল (১৮) রাজমিস্ত্রির কাজ করে। এ দুজন আবার টিপন নামে স্থানীয় একজনের পরিচিত। আর টিপনের ভাগ্নি বীথির সঙ্গে ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর সম্পর্ক রয়েছে। গত শুক্রবার রাত ১০টার দিকে বীথি ওই ছাত্রীকে ঘুম থেকে ডেকে তোলে। সে দরজা খুলতেই টিপন তার মুখ চেপে ধরে বাড়ির অদূরে একটি হলুদ ক্ষেতে নিয়ে যায়। সেখানে আকছেদ ও রাসেল ছিল। টিপন তাকে আকছেদ ও রাসেলের হাতে দিয়ে চলে যায়। পরে আকছেদ ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। বালিয়াকান্দি থানার ওসি হাসিনা বেগম জানান, এ ব্যাপারে তিনি কোনো অভিযোগ পাননি।

শেরপুর প্রতিনিধি জানান, নকলা উপজেলার ফুলপুর গ্রামে সাত বছরের এক শিশু ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারকৃত আব্দুল জব্বার (৪০) একই গ্রামের বাসিন্দা। তাকে গতকাল আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

 



মন্তব্য