kalerkantho


কিশোরগঞ্জ-২ আসন

সাবেক আইজিপি নূর মোহাম্মদের বিশাল শোডাউন

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



তিন হাজার মোটরসাইকেল, তিন শতাধিক পিকআপ ভ্যান, দুই শতাধিক ইজি বাইক ও শতাধিক অটোরিকশা নিয়ে স্মরণকালের সবচেয়ে বড় শোডাউন করলেন সাবেক আইজিপি নূর মোহাম্মদ। তিনি কিশোরগঞ্জ-২ (কটিয়াদী ও পাকুন্দিয়া) আসন থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন চান। সেই প্রত্যাশা থেকে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় গণসংযোগ করছেন তিনি। দুই বছর ধরে তিনি এলাকা চষে বেড়ালেও গতকাল সোমবারের শোডাউনটি ছিল সবচেয়ে বড় ও দৃষ্টিনন্দন। ৫০ কিলোমিটার শোভাযাত্রায় কমপক্ষে ২০ থেকে ২২ হাজার কর্মী-সমর্থক অংশ নেয়।

সকাল ১১টার দিকে কটিয়াদীর মানিকখালী থেকে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে মোটরযান শোভাযাত্রা শুরু করেন পুলিশের সাবেক আইজি নূর মোহাম্মদ। প্রায় ৫০ কিলোমিটার নির্বাচনী শোডাউনে ব্যানার-ফেস্টুনসহ বাদ্যযন্ত্র নিয়ে অংশ নেয় তাঁর কর্মিবাহিনী। এ সময় রাস্তার দুই পাশে শত শত মানুষ হাত নেড়ে নূর মোহাম্মদকে অভিনন্দন জানায়। তিনিও এ সময় ছাদ খোলা মাইক্রোবাস থেকে হাত নেড়ে মানুষের অভিবাদনের জবাব দেন।

কটিয়াদী বাসস্ট্যান্ড এলাকা হয়ে কিশোরগঞ্জ-ভৈরব আঞ্চলিক মহাসড়কের কালিয়াচাপড়া বাজার, পুলেরঘাট, পাকুন্দিয়া উপজেলা সদর, মঠখোলা হয়ে গাড়িবহরটি আবার কটিয়াদীতে গিয়ে শেষ হয়।

শোডাউনে অংশ নেওয়া আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা জানায়, অল্প কিছুদিনের মধ্যেই নূর মোহাম্মদ দুই উপজেলার মানুষের মন জয় করেছেন। তাদের দাবি, মনোনয়ন পেলে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী যিনিই হন না কেন নূর মোহাম্মদের জয়ী হওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি।

এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মো. সোহরাব উদ্দিন। তিনি ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে আওয়ামী লীগের টিকিটে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। তিনি এবার দলের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করতে চান। সে লক্ষ্যে বর্তমান সংসদ সদস্যও মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। করছেন সভা-সমাবেশ। এ দুই হেভিওয়েট প্রার্থী ছাড়াও কিশোরগঞ্জ-২ আসন থেকে  আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম এ আফজল, পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রেনু, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট মোখলেছুর রহমান বাদল, আওয়ামী লীগ নেতা মঈনুজ্জামান অপু ও কটিয়াদী উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান লায়ন আলী আকবর।

 



মন্তব্য