kalerkantho

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথ

পানি বৃদ্ধি ও তীব্র স্রোতে পারাপার ব্যাহত হচ্ছে

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি   

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নদীতে পানি বৃদ্ধি পেয়ে ঘাট ডুবে যাওয়া, ফেরিস্বল্পতা ও প্রবল স্রোতের কারণে ব্যস্ততম দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে যানবাহন পারাপার ব্যাহত হচ্ছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দৌলতদিয়া ঘাটে আটকে পড়ে ঢাকাগামী যাত্রীবাহী বাস, পণ্যবাহী ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যানসহ শত শত গাড়ি। বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত ফেরিঘাট থেকে মহাসড়কের সাড়ে চার কিলোমিটার রাস্তায় তীব্র যানজট লেগে ছিল। দুর্ভোগ পোহাতে হয় আটকে থাকা যানবাহনের চালক ও যাত্রীদের।

বিআইডাব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট অফিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে লেগে থাকা ফেরির সংকট কাটেনি। পাশাপাশি গোয়ালন্দ পয়েন্টে পদ্মার পানি বৃদ্ধির পাশাপাশি স্রোতের তীব্রতা দিন দিন বাড়ছে। গতকাল ভোরে দৌলতদিয়ায় ছয়টি ফেরিঘাটের মধ্যে ২ ও ৫ নম্বর ঘাট পন্টুনের র‌্যাম ও পকেট পথ তলিয়ে যায়। পরে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ঘাট দুটি বন্ধ ঘোষণা করে। চালু থাকা অন্য চারটি ঘাট দিয়ে কোনো রকমে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে।

নৌপথের দৌলতদিয়া প্রান্তে পদ্মা ও পাটুরিয়া প্রান্তে যমুনা নদীতে প্রচণ্ড স্রোত বইছে। এর ফলে ফেরিগুলো নির্দিষ্ট চ্যানেল ছেড়ে দেড়-দুই কিলোমিটার ভাটিপথ ঘুরে অনেকটা ধীরগতিতে চলাচল করছে। এতে সময় বেশি লেগে যাওয়ায় ফেরির ট্রিপ সংখ্যা প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছে।

স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ড অফিস সূত্র জানায়, পদ্মা নদীর গোয়ালন্দ পয়েন্টে পানি বৃদ্ধির পাশাপাশি স্রোতের তীব্রতা দিন দিন বাড়ছে। এই পয়েন্টে গত ২৪ ঘণ্টায় সাত সেন্টিমিটার পানি বেড়ে বিপত্সীমার ২৮ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে পদ্মা।

বিআইডাব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) শফিকুল ইসলাম জানান, ফেরি ও ঘাট সংকটের পাশাপাশি তীব্র স্রোতের কারণে স্বাভাবিক ফেরি পারাপার ব্যাহত হচ্ছে। এতে দৌলতদিয়া ঘাটে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।’

মন্তব্য