kalerkantho


সরকারের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি

চালে কূটচাল!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



সরকারের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রির শুরুতেই নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। বস্তায় দুই থেকে তিন কেজি চাল কম পাচ্ছে দুস্থরা। অনেক এলাকায় ১০ টাকা কেজি দরের চাল বিক্রি করা হচ্ছে ১১ টাকায়। কোথাও কোথাও দুস্থদের চাল মিলছে কালোবাজারে। এ ব্যাপারে আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর : 

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) : মির্জাপুরে ১০ টাকা কেজি দরের চাল মাপে কম দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ডিলারদের দাবি, খাদ্যগুদাম থেকে ডিলারদের চালের বস্তায় ওজনে কম দেওয়ায় কার্ডধারীরাও কম পাচ্ছে। তবে খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান জানান, ডিলাররা তাঁদের বরাদ্দের চাল গুদাম থেকে সঠিক মাপে বুঝে নিয়েছেন। এদিকে উপজেলার ১৪ ইউনিয়নের ডিলাররা চাল বিক্রি শুরু করলেও বেশির ভাগ কার্ডধারী, ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যরা তা জানেন না বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জামালপুর : সদর উপজেলার ঘোড়াধাপ ইউনিয়নে কালোবাজারে বিক্রি করা সরকারের ১০ টাকা কেজি দরের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১৯০ বস্তা চাল জব্দ করেছে প্রশাসন। গত মঙ্গলবার রাতে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী হাকিম ও সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এস এম মাজহারুল ইসলাম এ অভিযান চালান। জব্দ করা চালগুলো এ কর্মসূচির ঘোড়াধাপ ইউনিয়নে নিয়োজিত ডিলার ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মতিউর রহমানের বলে নিশ্চিত হয়েছে অভিযানকারী দলটি। নির্বাহী হাকিম এস এম মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘জব্দ করা চাল স্থানীয় নরুন্দি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের হেফাজতে রাখা হয়েছে। ডিলার মতিউর রহমানসহ সংশ্লিষ্টদের নামে মামলা করা হবে।’

চরফ্যাশন (ভোলা) : চরফ্যাশনের স্থানীয় ডিলাররা ১০ টাকার চাল ১১ টাকায় বিক্রি করছে। ৩০ কেজির বস্তায় চাল মিলছে ২৯ কেজি। খোলা থাকলে দেওয়া হচ্ছে ২৭ থেকে ২৮ কেজি। সংশ্লিষ্টরা মনে করেন, স্থানীয় ডিলারদের কারসাজিতে ভেস্তে যেতে বসেছে সরকারের একটি শুভ উদ্যোগ।

চরফ্যাশন ও মনপুরা খাদ্য অফিস সূত্রে জানা গেছে, চরফ্যাশনে ৫৭ ডিলারের মধ্যে ৫৬ জন চালের বরাদ্দ তুলেছেন। গত সোমবার থেকে এই চাল নির্ধারিত কার্ডধারীদের মাঝে বিতরণ শুরু হয়েছে।

সুবিধাভোগী ছকিনা বেগম ও রিকশাচালক নুর আলম বলেন, ‘বাজারে চালের যে দাম কিনে খাইতে কষ্ট হইত। আজ প্রধানমন্ত্রী আমাগোরে ১০ টাকায় চাইল দেওয়ায় আমরা তাঁর জন্য দোয়া করছি। আমাগো মন্ত্রী জ্যাকবও প্রধানমন্ত্রী থেকে টাকার চেক আইনা আমাগোরে দিয়েছেন। তাঁর জন্যও দোয়া করি।’

 



মন্তব্য