kalerkantho


মার্কেটে পরিচয়ের সূত্রে দলে ভেড়ে সাদিয়া

১০ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার ২

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বছর দুয়েক আগে ঢাকার নিউ মার্কেটে কেনাকাটা করতে যান গৃহবধূ সাদিয়া ইসলাম মায়া। সেখানে দুই নারী মাদক কারবারির সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। আদান-প্রদান হয় ফোন নম্বরও। মাঝেমধ্যে ফোনে দুই মাদক কারবারির সঙ্গে কথা হতো মায়ার। মাদক কারবারে নগদ টাকা, অল্প সময়ে বিত্তবান হওয়ার গল্প দুই মাদক কারবারির কাছ থেকে প্রায়ই শুনত মায়া। একপর্যায় তারা মায়াকে মাদক কারবারের প্রস্তাব দেয় এবং মাদকের চালান পেতে সহযোগিতার আশ্বাসও দেয়। আর এতেই লোভে পড়ে মাদক কারবারির খাতায় নাম লেখায় মায়া। এ কারবার করতে গিয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ধরাও পড়তে হয়েছে তাঁকে। সর্বশেষ গতকাল বুধবার সহযোগী কাইয়ুম খানসহ ফের ধরা পড়েছেন ভাটারা এলাকার এই মাদক সম্রাজ্ঞী। 

র‌্যাব-৩-এর লে. কমান্ডার আশিকুর রহমান বলেন, গতকাল সকালে ভাটারা থেকে মায়া ও তাঁর সহযোগী কাইয়ুমকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাঁদের কাছ থেকে ১০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে। মায়া দীর্ঘদিন ধরে চট্টগ্রাম থেকে ইয়াবা এনে কারবার করতেন। ভাটারা থানায় তাঁর নামে মামলা রয়েছে। এর আগে জেলও খেটেছেন কিন্তু পেশা পরিবর্তন করেননি।

র‌্যাব কর্মকর্তারা জানান, বেশ কয়েক বছর কাইয়ুম ও মায়ার পরিবার একই বাসায় সাবলেট হিসেবে ভাড়া থাকছে। সেই সুবাদে তাঁদের পরিচয়। তবে মাঝে দিয়ে কাইয়ুম লন্ডনে চলে যান। বছর দুয়েক আগে দেশে আসেন। সেখানে মায়ার স্বামীও রয়েছেন। দেশে ফেরার পর কাইয়ুমকে মাদক কারবারে যুক্ত করেন মায়া। মাদক আইনে তাঁদের বিরুদ্ধে ভাটারা থানায় মামলা হয়েছে।

২৪ ঘণ্টায় গ্রেপ্তার ৪৪

এদিকে ডিএমপির ডিসি (মিডিয়া) মো. মাসুদুর রহমান জানান, মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে গতকাল সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে ৪৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। অভিযানে দুই হাজার ৭৩৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ অন্যান্য মাদক জব্দ করা হয়। মাদক আইনে তাঁদের বিরুদ্ধে ৩১টি মামলা করা হয়েছে।

 

 



মন্তব্য