kalerkantho


প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ

সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রত্যাশা জানালেন বার্নিকাট

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রত্যাশা জানালেন বার্নিকাট

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে গতকাল গণভবনে সাক্ষাৎ করেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট। ছবি : বাসস

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতে এ দেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রত্যাশা তুলে ধরেছেন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট। এর জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগ অনেক উদ্যোগ নিয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঢাকায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের পূর্বনির্ধারিত সৌজন্য সাক্ষাতে নির্বাচন প্রসঙ্গ ছাড়াও বিশেষ গুরুত্ব পেয়েছে রোহিঙ্গা সংকট।

কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, ট্রাম্প প্রশাসন বাংলাদেশকে আশ্বাস দিয়েছে যে আসন্ন জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যুক্তরাষ্ট্র রোহিঙ্গা ইস্যুতে জোরালো ভূমিকা রাখবে। যুক্তরাষ্ট্র চলতি সেপ্টেম্বর মাসে নিরাপত্তা পরিষদে সভাপতির দায়িত্বে আছে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র নিরাপত্তা পরিষদেও জোরালো ভূমিকা রাখছে।

গণভবনে গতকাল বার্নিকাটের সাক্ষাৎ শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেসসচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের জানান, বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আসন্ন সাধারণ পরিষদ অধিবেশনে যুক্তরাষ্ট্র জোরালো ভূমিকা রাখবে বলে দেশটির রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছেন।

বার্তা সংস্থা ইউএনবি জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত জ্বালানি খাতে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির জোরালো প্রশংসা করেছেন। তিনি বাংলাদেশে তরল প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) রপ্তানিও এবং এ খাতে যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বেসরকারি খাতে যাতে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয় সে জন্য তাঁর সরকার জ্বালানিসহ সব খাত উন্মুক্ত করে দিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের উদ্যোগ তুলে ধরার পাশাপাশি অনেক নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দলের পরাজিত হওয়ার কথাও বার্নিকাটকে জানান। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এমনকি আমরা মাত্র দুই হাজার ভোটে হেরেছি। কিন্তু কোনো কারচুপি করিনি।’ তিনি বলেন, তাঁর দল কিছু মানদণ্ডের ভিত্তিতে প্রার্থীদের মূল্যায়ন করছে।

যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আগামী নির্বাচনে পর্যবেক্ষক পাঠানোর বিষয়টিও প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরেন। এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার পর্যবেক্ষকদের স্বাগত জানাবে।

প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।



মন্তব্য