kalerkantho


আলোচনাসভায় মোশাররফ

জাতীয় ঐক্য দ্রুতই জাতীয় রাজনৈতিক ঐক্যে রূপ নেবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ‘জাতীয় ঐক্য নীতিগত ঐক্য। ইতিমধ্যে জনগণের ঐক্য সৃষ্টি হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি, এই জাতীয় ঐক্য শিগগিরই জাতীয় রাজনৈতিক ঐক্যে রূপান্তরিত হবে। ঐক্যবদ্ধভাবেই আমরা স্বৈরশাসন থেকে দেশকে মুক্ত করব।’

গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনাসভায় ড. মোশররফ এসব কথা বলেন। ‘ষড়যন্ত্রের রাজনীতির অবসান এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে জাতীয় ঐক্যের প্রয়োজনীয়তা’ শীর্ষক এই আলোচনার আয়োজন করে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম।

ড. মোশাররফ বলেন, জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে সংসদ ভেঙে দেওয়া, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন, নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন ও নির্বাচনের সময় সেনাবাহিনী মোতায়েনের বিষয়ে বিএনপির নেতৃত্বে ২০ দল, অধ্যাপক এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বে যুক্তফ্রন্ট, ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ঐক্য প্রক্রিয়া, বাম জোট—সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। এমনকি চরমোনাই পীর সাহেবের দলও বলেছে যে নির্বাচনের আগে সংসদ ভেঙে দিতে হবে ও নির্বাচনকালীন একটি সরকার করতে হবে।

ড. মোশাররফ বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন যে আওয়ামী লীগকে ছাড়া জাতীয় ঐক্য কিভাবে? কোন ইস্যুগুলোতে জনগণের ঐকমত্য সৃষ্টি হয়েছে? আমরা বলতে চাই—ইস্যুগুলো হলো এই স্বৈরাচারী সরকারের অবসান, এই ষড়যন্ত্রের অবসান, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার, আওয়ামী লীগের বাক্সে বন্দি গণতন্ত্রকে পুনরুদ্ধার। যাদের বিরুদ্ধে এই ঐক্য এখন তারাই বলে কি না আওয়ামী লীগকে সঙ্গে নিতে হবে। এটা হাস্যকর। যারা বাকশাল প্রতিষ্ঠা করেছে, যারা ১/১১-তে অবৈধ সরকারকে বলেছে তাদের আন্দোলনের ফসল, যারা ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি গণতন্ত্রকে বাক্সে বন্দি করে অন্যায়ভাবে ক্ষমতায় আছে, তারাই এখন এমন কথা বলছে।’



মন্তব্য