kalerkantho


ধামরাইয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি   

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



ধামরাইয়ের সোমভাগ ইউনিয়নের গাওয়াইল দক্ষিণপাড়া গ্রামে বকুলি বেগম নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনার পর তাঁর স্বামী আব্দুর রাজ্জাক পলাতক। পারিবারিক কলহে বকুলি আত্মহত্যা করেছেন বলে স্বজনরা জানায়।

বকুলির ভাই খোকন মিয়া জানান, রাজ্জাক খারাপ কাজে অর্থ ব্যয় করায় বকুলি প্রতিবাদ করতেন। এ কারণে তাঁকে মারধর করা হতো। অত্যাচার সহ্য করতে না পেরেই আত্মহত্যা করেন বকুলি।

ধামরাই থানার এসআই মলয় কুমার সাহা জানান, লাশ উদ্ধারের সময় বকুলির স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে বাড়িতে পাওয়া যায়নি। পারিবারিক অশান্তিতে আত্মহত্যা বলে ধারণা পাওয়া গেছে।

স্বজনরা জানায়, আব্দুর রাজ্জাক ও বকুলির বিয়ে হয়েছে ২০ বছর আগে। তাঁদের সুরভি আক্তার শিলা (১৯) নামের এক কন্যাসন্তান রয়েছে। রাজ্জাক ডিশ লাইনে অপারেটরের কাজ করেন। তাঁদের পরিবারে প্রায়ই ঝগড়া হতো। বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বকুলি গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। পুলিশ গতকাল সকালে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।



মন্তব্য