kalerkantho


স্বপ্নের পরিভ্রমণ সারা দেশে

মাদককে লাল কার্ড বান্দরবানে

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



সমাজবদলের স্বপ্ন নিয়ে এক তরুণ ঘুরছেন দেশের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে। মাদক, সন্ত্রাস, ইভ টিজিং ও বাল্যবিয়েকে দেখাচ্ছেন লাল কার্ড। দেশপ্রেমের জন্য রয়েছে সবুজ কার্ড। স্কুলের শিক্ষার্থীদের নিয়ে ব্যতিক্রমী এ উদ্যোগ চলছে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের ব্যানারে। প্রতিটি এলাকার প্রশাসনিক কর্মকর্তাসহ সচেতন মহল সহযোগিতা করছে এ প্রচারণায়। গতকাল সোমবার বান্দরবান জেলায় ছিল লাল কার্ড প্রদর্শন। ৮ সেপ্টেম্বর কক্সবাজারের একটি স্কুলে লাল কার্ড দেখিয়ে ৬৪ জেলা পরিভ্রমণ কর্মসূচি সম্পন্ন করবেন তরুণ কাওসার আলম সোহেল। তিনিই লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের প্রতিষ্ঠাতা।

জানা যায়, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের ছাত্র কাওসার আলম সোহেল গত ৮ মার্চ পঞ্চগড় জেলার তেঁতুলিয়া থেকে যাত্রা শুরু করেছেন লাল কার্ড প্রদর্শনে। এরই মধ্যে ৬৩ জেলা পরিভ্রমণ সম্পন্ন হয়েছে। শেষ জেলা হিসেবে কক্সবাজারে লাল কার্ড প্রদর্শন বাকি রয়েছে। সোহেল বিভিন্ন স্কুলে গিয়ে মাদক, সন্ত্রাস, ইভ টিজিং, শিশু ও নারীর প্রতি সহিংসতা, যৌতুক ও বাল্যবিবাহকে ‘না’ বলার অঙ্গীকার করাচ্ছেন ছাত্র-ছাত্রীদের। শিক্ষার্থীরা লাল কার্ড দেখিয়ে শপথ নিচ্ছে। অনেক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে চলছে সচেতনতামূলক এই কর্মসূচি।

বান্দরবান জেলা সদরের ডন বস্কো উচ্চ বিদ্যালয়ে গতকাল আয়োজিত লাল কার্ড প্রদর্শন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইয়াসির আরাফাত, স্কুলের প্রধান শিক্ষক ব্রাদার সিলভেস্টার মৃধা, বান্দরবান প্রেস ক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু প্রমুখ। সাত শতাধিক শিক্ষার্থী শপথ গ্রহণ করে অনুষ্ঠানে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইয়াসির আরাফাত বলেন, পুলিশ নিরন্তর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে মাদক, ইভ টিজিং ও বাল্যবিবাহ বন্ধে। তার পরও পুরো নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না। এভাবে লাখ লাখ শিশু-কিশোর মাদক, সন্ত্রাস, যৌতুক, বাল্যবিয়ে ও ইভ টিজিংয়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ালে কাজটি সহজসাধ্য হয়ে উঠবে।

অনুষ্ঠানে কাওসার আলম সোহেল জানান, টিফিন ও বৃত্তির টাকা নিয়ে ২০১১ সালে শুরু হয়েছিল লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের যাত্রা। বোনের অলংকার বিক্রির টাকাও যোগ হয়েছিল এ উদ্যোগে। এখন অনেকেই সহযোগিতার হাত বাড়াচ্ছে। তবে মূল কাজ করতে হয় নিজের উদ্যোগেই। এরপর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নিয়ে নতুন অভিযাত্রার ইচ্ছা আছে বলে জানান তিনি। আর এসব উদ্যোগের মাধ্যমে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ।

 



মন্তব্য