kalerkantho


নারায়ণগঞ্জে এজিবি কর্মকর্তা খুন

স্ত্রী ও ছেলে গ্রেপ্তার, মেয়ে পলাতক

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জ শহরের জামতলায় এজিবির সাবেক কর্মকর্তা শাহাদাৎ হোসেন (৬৫) নিহত হওয়ার ঘটনায় গতকাল রবিবার নিহতের ছোট ভাই আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলায় নিহতের স্ত্রী ও ছেলেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ফতুল্লা মডেল থানার পুলিশের ওসি শাহ মোহাম্মদ মঞ্জুর কাদের জানান, নিহতের ছোট ভাই বন্দরের কলাবাগ এলাকার বাসিন্দা আনোয়ার হোসেন হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় নিহতের স্ত্রী বিলকিস বেগম, ছেলে বিল্লাল হোসেন শাকিব ও বড় মেয়ে শামীমা আক্তার নিপাকে আসামি করা হয়েছে। পুলিশ এরই মধ্যে বিলকিস ও শাকিবকে গ্রেপ্তার করেছে। পলাতক রয়েছেন অপর আসামি নিপা।

আনোয়ার হোসেনের অভিযোগ, তাঁর বড় ভাই শাহাদাৎ হোসেন এজিবির সিনিয়র অডিট অফিসার হিসেবে পাঁচ বছর আগে অবসর নেন। তিনি জামতলা ধোপাপট্টি এলাকার সোহাগ মিয়ার পাঁচতলা ভবনের তৃতীয় তলার একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে স্ত্রী-সন্তানসহ থাকতেন। স্ত্রী-সন্তানরা প্রায়ই শাহাদাৎ হোসেনকে মারধর করত। আনোয়ারের দাবি, শাহাদাতের সঞ্চিত টাকার জন্যই তাঁকে মারধর করা হতো। এ নিয়ে শাহাদাৎ ফতুল্লা মডেল থানায় জিডিও করেছিলেন। আনোয়ার তাঁর বড় ভাই হত্যার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।

গত শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে জামতলার ভাড়া বাসা থেকে শাহাদাৎ হোসেনের মরদেহ উদ্ধার করে ফতুল্লা মডেল থানার পুলিশ। নিহতের ডান চোখের ওপরের অংশে একটি এবং ডান বুকে চারটি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

 



মন্তব্য