kalerkantho


রাজবাড়ীতে সালিসের পর স্কুলছাত্রীর বাবাকে মারধর

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলায় সালিসের পর এক স্কুলছাত্রীর বাবাকে মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নবম শ্রেণির দুই ছাত্রীর মধ্যকার বিবাদ মেটাতে ওই সালিস ডাকা হয়েছিল। ভুক্তভোগী অমল স্যানাসী তাদের একজনের বাবা। তিনি জামালপুর ইউনিয়নের মাশালিয়া গ্রামের বাসিন্দা।

অমল স্যানাসী জানান, তাঁর মেয়ে ঈশিতা নটাপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণিতে পড়ে। বেশ কয়েক দিন আগে প্রাইভেট পড়ার সময় ঈশিতার সঙ্গে পাশের বাকসীডাঙ্গী গ্রামের জহুরুল ইসলামের মেয়ে মিলি আক্তারের ঝগড়া হয়। ওই ঘটনার জেরে ঈশিতাকে গত ১২ আগস্ট মিলি আক্তার ও তার মা মারধর করে। এতে তিনি  (ঈশিতার বাবা) বিচার চেয়ে নটাপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে আবেদন করেন। ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত শনিবার বিকেলে স্কুল প্রাঙ্গণে সালিস বসে। সালিসে মিলির চাচা রফিকুল ইসলাম ঈশিতার বাবার কাছে ক্ষমা চান এবং বিষয়টি মীমাংসা হয়ে যায়। কিন্তু সালিস থেকে বের হয়ে পার্শ্ববর্তী বাজারে গেলে মিলির ভাই রাসেল ও তার সহযোগীরা অমল স্যানাসীর ওপর হামলা চালায়।

নটাপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সালাম অমল স্যানাসীকে মারধর করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বালিয়াকান্দি থানার ওসি আবুল কালাম ভূঁইয়া জানান, অমল স্যানাসী একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।



মন্তব্য