kalerkantho


রিজভী বললেন

সরকার সুষ্ঠু নির্বাচনের শত্রুপক্ষ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ বলেছেন, নির্বাচন নিয়ে সংবিধানের দোহাই দিয়ে গড়িমসি চলবে না। জনগণের ভোট জনগণকে সুষ্ঠুভাবে দিতে হলে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের কোনো বিকল্প নেই। এই সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন জনগণ হতে দেবে না। রিজভী বলেন, ‘সরকার সুষ্ঠু নির্বাচনের শত্রুপক্ষ। এদের অধীনে নির্বাচনের অর্থই হচ্ছে ভোটারদের ভোটাধিকার হরণ।’

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন। খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্য কোনোভাবে গ্রহণযোগ্য নয়, এটা সত্যের অপলাপ। বিএনপির জনসভায় বিপুল মানুষের সমাগমেই প্রমাণিত হয়েছে জনগণ এই সরকারকে আর চায় না। তারা আওয়ামী লীগের বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করেছে।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচন নিয়ে সংবিধানের দোহাই দিচ্ছেন আওয়ামী লীগের মন্ত্রীরা। কিন্তু এই সংবিধান তাঁরাই পরিবর্তন করেছেন। তাই ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্য অগ্রহণযোগ্য ও সত্যের অপলাপ। কারণ সংবিধান সংশোধন করা যায়; যেমনটি ক্ষমতাসীনরা করেছেন। তাঁরা যেভাবে বাদ দিয়েছেন ঠিক সেভাবেই আবার তা সংবিধানে সংযোজন করা সম্ভব।’

রিজভী বলেন, অবিলম্বে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে। সরকারকে পদত্যাগ করে সংসদ ভেঙে নির্বাচন দিতে হবে। নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে দলের যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবীর খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



মন্তব্য