kalerkantho


চুনারুঘাটে বর্শার আঘাতে যুবক নিহত, আহত ২

নেপথ্যে গরুর ধান খাওয়া!

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলায় প্রতিপক্ষের বর্শার আঘাতে ছুনু মিয়া (৩৫) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে তাঁর মা ও ভাই। নিহতের পরিবারের দাবি, ঘটনাটি ঘটেছে জমিতে গরুর ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে। আর পুলিশ বলছে, ঘটনার সূত্রপাত সৌরবিদ্যুতের একটি ব্যাটারি নিয়ে।

গতকাল শনিবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার ভারতীয় সীমান্তসংলগ্ন আলীনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ছুনু মিয়ার পক্ষের লোকজনের ভাষ্য, গতকাল সকালে ছুনু মিয়ার জমিতে ওই গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে জাহিদুল এবং আজিজুলের গরু ধান খায়। ছুনু মিয়া তাতে বাধা দেন এবং গরুর মালিককে বকাঝকা করেন। তখন জাহিদুল ও আজিজুল গরু বাড়িতে নিয়ে যায়। এরপর দুপুর ১২টার দিকে ছুনু মিয়া জমি থেকে ফেরার পথে তাঁর ওপর দলবল নিয়ে হামলা চালায় জাহিদুল ও আজিজুল। এ সময় বর্শার আঘাতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ছুনু মিয়ার। সেখানে তাঁর মা রাবেয়া খাতুন ও ভাই নুহু মিয়া এগিয়ে এলে তাঁদেরও মারধর করা হয়। এ দুজনকে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।

খবর পেয়ে চুনারুঘাট থানার ওসি কে এম আজমিরুজ্জামান পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে যান এবং লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠান। এ ছাড়া হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে পাঁচজনকে আটক করা হয়। ওসি বলেন, ‘গরু ধান খাওয়ার যে কথা বলা হচ্ছে, তা ঠিক নয়। ছুনু মিয়া জাহিদুলের বাড়ির সৌরবিদ্যুতের ব্যাটারি খুললে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে ছুনু মিয়া জাহিদুলকে আঘাত করে। এরপর জাহিদুল লোকজন নিয়ে হামলা চালালে সংঘর্ষ বাধে এবং ছুনু মিয়া মারা যায়।’

ছুনু মিয়ার মা রাবেয়া খাতুন বলেন, ‘গরুর ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে আমার ছেলেকে প্রতিপক্ষের লোকজন হত্যা করেছে। আমি এর বিচার চাই।’



মন্তব্য