kalerkantho


পুলিশের ফার্নিচারে ২৯ হাজার ইয়াবা

র‌্যাবের হাতে আটক ২

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) এক উপপরিদর্শকের বিরুদ্ধে ঢাকায় ফার্নিচার পাঠানোর আড়ালে ইয়াবা পাচার করছিলেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল শুক্রবার ভোরে চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে ওই ফার্নিচারবোঝাই একটি মিনিট্রাক থামিয়ে ২৯ হাজার ২৮৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে র‌্যাব। এ সময় ট্রাকটি জব্দ এবং এর চালক ও হেলপারকে আটক করা হয়।

আটক ব্যক্তিরা হলেন ট্রাকচালক মো. মোক্তার (২৪) ও তাঁর হেলপার মো. সবুজ ওরফে বাবু (১৯)। এ ঘটনায় অভিযুক্ত সিএমপির উপপরিদর্শক মো. বদরুদ্দৌজা মাহমুদকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

র‌্যাব-৭-এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মিমতানুর রহমান বলেন, ফার্নিচারবোঝাই একটি মিনিট্রাকে করে ইয়াবা পাচারের সময় মিরসরাই উপজেলার রেদোয়ান পেট্রল পাম্পসংলগ্ন এলাকা থেকে মো. মোক্তার ও মো. সবুজ নামে দুজনকে আটক করে র‌্যাব। তাঁদের কাছ থেকে ফার্নিচারের (স্টিলের ফাইল কেবিনেট) ভেতর তালাবদ্ধ করে লুকানো ২৯ হাজার ২৮৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। ট্রাকচালক ও সহকারী ইয়াবাগুলো নিয়ে চট্টগ্রাম নগরের লালখানবাজার হাইলেভেল রোড থেকে ঢাকার মোহাম্মদপুরে নিয়ে যাচ্ছিলেন বলে জানান মিমতানুর রহমান।

ইয়াবাগুলো সিএমপির এক উপপরিদর্শকের (এসআই) বলে জানা গেছে। এই উপপরিদর্শকের নাম মো. বদরুদ্দৌজা মাহমুদ। তিনি সিএমপির পুলিশ লাইনে সংযুক্ত আছেন। এক মাস আগে ডিএমপির গোয়েন্দা শাখা থেকে তাঁকে শাস্তিমূলক বদলি করে সিএমপিতে পাঠানো হয় বলে সিএমপি কর্মকর্তারা জানান।

ইয়াবা উদ্ধারের পর তাঁদের দুজনের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী উপপরিদর্শক বদরুদ্দৌজাকে আটক করে খুলশী থানা পুলিশের হেফাজতে তুলে দেন সিএমপির পাবলিক অর্ডার ম্যানেজম্যান্ট বিভাগের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার শাকিলা সুলতানা। উপপরিদর্শক বদরুদ্দৌজা বর্তমানে খুলশী থানা পুলিশের হেফাজতে আছেন।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার শাকিলা সুলতানা বলেন, উপপরিদর্শক বদরুদ্দৌজার বিরুদ্ধে একটি বিভাগীয় মামলা রয়েছে। সেই মামলা এখন তদন্তাধীন রয়েছে। আটক ট্রাকচালক মো. মোক্তার ও হেলপার মো. সবুজকে আসামি করে র‌্যাবের পক্ষ থেকে মিরসরাই থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন। সেই মামলায় উপপরিদর্শক বদরুদ্দৌজাকে সরাসরি আসামি করা না হলেও তাঁর সম্পৃক্ততার কথা উল্লেখ করা হবে।

 



মন্তব্য